শহীদদের প্রতি খালেদা জিয়ার শ্রদ্ধা নিবেদন

0
233
Print Friendly, PDF & Email

জাতীয় স্মৃতিসৌধ (১৬েডিসেম্বব) : মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের ৪১ বছর পূর্তিতে সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন সংসদের প্রধান বিরোধীদলীয় নেতা ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

বোরবার সকাল ৭টা ২৪ মিনিটে সাভার স্মৃতিসৌধে পৌঁছান খালেদা জিয়া। ৭টা ৩৮ মিনিটে স্মৃতিসৌধের বেদিমূলে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান দেন তিনি।

এ সময় খালেদা জিয়ার সঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, তরিকুল ইসলাম, ড. মঈন খান, ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাসসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে ভোর সোয়া ৬টার দিকে জাতীয় স্মৃতিসৌধে আসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৬টা ২৫ এ ফুল দিয়ে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান দেন তিনি।

তিন বাহিনীর একটি চৌকস দল এ সময় প্রধানমন্ত্রীকে সালাম জানায়। শহীদদের স্মরণে বিউগলে বাজানো হয় করুণ সুর। কিছুটা সময় নিরবে দাঁড়িয়ে একাত্তরের সেই শহীদদের স্মরণ করেন শেখ হাসিনা।

এসময় মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা, কূটনীতিক, তিন বাহিনীর প্রধান, মুক্তিযোদ্ধা এবং পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

শারীরিক অসুস্থতার কারণে রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ জিল্লুর রহমান স্মৃতিসৌধে যাননি।

শ্রদ্ধা জানান জাতীয় সংসদের স্পিকার আব্দুল হামিদ অ্যাডভোকেট, বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকবৃন্দসহ সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠন।

এসময় পতাকা আর ফুল হাতে জনতার ঢল নামে সৌধ প্রাঙ্গণে। ফুলে ফুলে ভরে ওঠে স্মৃতির এ মিনার।

১৬ ডিসেম্বর পুরো জাতির মুক্তিযুদ্ধ জয়ের আনন্দে উদ্বেলিত হওয়ার দিন। ৪২তম মহান বিজয় দিবস। নয় মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধ শেষে ১৯৭১ সালের আজকের দিনটিতেই বাঙালি জাতি স্বাধীনতা সংগ্রামের চূড়ান্ত বিজয় অর্জন করেছিল। রাজধানী ঢাকার তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে (সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) দখলদার পাকহানাদার বাহিনীর আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে এ দিনেই স্বাধীনতার রক্তিম সূর্যালোকে উদ্ভাসিত হয়েছিল স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ।

নিউজরুম

শেয়ার করুন