নেত্রকোনায় প্রতিপক্ষের হামলায় দুইজন নিহত

0
833
Print Friendly, PDF & Email

নেত্রকোনার মদনে প্রতিপক্ষের হামলায় দুইজন নিহত হয়েছেন। এদিকে বরিশাল ও মাদারীপুরের কালকিনিতে দুইজনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া কুমিল্লার দাউদকান্দি এবং নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার থেকে দুইজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। অফিস, প্রতিনিধি এবং সংবাদদাতাদের পাঠানো খবর : নেত্রকোনা : নেত্রকোনার মদন উপজেলার ত্রিয়শ্রী ইউনিয়নের দড়িবিনি্ন গ্রামে প্রতিপক্ষের অস্ত্রের আঘাতে ২ জন খুন হয়েছেন। শনিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন উপজেলার দড়িবিনি্ন গ্রামের মৃত সাহেদ আলীর ছেলে লিটন (৪৫) এবং মৃত মজিদ খাঁর ছেলে আনছু মিয়া (৪২)। স্থানীয়রা জানান, উপজেলার ত্রিয়শ্রী ইউনিয়নের দড়িবিনি্ন গ্রামের লিটন, আনছু মিয়ার সঙ্গে একই গ্রামের মাহাবুব, মোজাম্মেল, ফজলু খাঁর মধ্যে জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। শনিবার দুপুরে লিটন ও আনছু মিয়া জমিতে কাজ করতে গেলে প্রতিপক্ষের লোকজন বল্লম, কিরিচ, লাঠিসহ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলা চালায়। হামলায় ঘটনাস্থলেই লিটন এবং আনছু মিয়া খুন হন। খবর পেয়ে মদন থানা পুলিশ নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় এলাকায় দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে মদন থানার ওসি এস এম মফিজুল ইসলাম বলেন, দড়িবিনি্ন গ্রামে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। খুনিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। বরিশাল : বরিশালে ওয়ালটন কোম্পানির শোরুমের এক মহিলা কর্মীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। মৃত ইসরাত জাহান হ্যাপী (২২) সরকারি বরিশাল কলেজ সংলগ্ন একটি ভবনের তৃতীয় তলায় বসবাস করতেন। পুলিশ সেখান থেকেই তার লাশ উদ্ধার করে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শেরেবাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় মর্গে পাঠায়। হ্যাপী বরিশাল সদর রোডের ওয়ালটন শোরুমে কর্মরত ছিলেন। তার স্বামী তাহের হোসেন একই শোরুমের ব্যবস্থাপক। হ্যাপীর মা ফরিদা বেগম জানান, তিন মাস আগে রাজশাহীর তাহের হোসেনের সঙ্গে ইসরাত জাহান হ্যাপীর বিয়ে হয়। তারা উভয়েই ওয়ালটন শোরুমে কর্মরত ছিল। রাত ৯টার দিকে ফরিদা বেগম মেয়ের বাসায় গিয়ে দেখেন দরজা খোলা এবং হ্যাপীর লাশ মেঝেতে পড়ে আছে। কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি শাখাওয়াত হোসেন জানান, লাশের গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগানোর দাগ রয়েছে। তবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা তা ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের পর জানা যাবে। কালকিনি (মাদারীপুর) : মাদারীপুরের কালকিনিতে অনামিকা বিশ্বাস পুতুল (২১) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। শনিবার পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে পাঠায়। অনামিকা বিশ্বাস পুতুল কালকিনি পৌরসভার ঝাউতলা গ্রামের অঞ্জন বিশ্বাসের স্ত্রী। পুলিশ জানায়, গত ৩ বছর পুর্বে ঝালকাঠি উপজেলা সদর কাঠপট্টি সড়ক এলাকার বিমল রায়ের মেয়ে পুতুল রায়ের সঙ্গে কালকিনি পৌর এলাকার ঝাউতলা গ্রামের অধির বিশ্বাসের ছেলে অঞ্জন বিশ্বাসের বিয়ে হয়। বিয়ের পড়ে তাদের কোনো সন্তান হয়নি। গত ৪-৫ দিন আগে থেকেই পুতুল তার পরিবারের লোকদের মোবাইল ফোনে জানিয়ে আসছিল অঞ্জন তার সঙ্গে ঝামেলা করতেছে। শুক্রবার রাতে তার মৃত্যু হয়। পরে অঞ্জন পুতুলের লেখা ৬ পাতার চিঠি শতাধিক ফটোকপি করে তা প্রতিবেশীদের দেখান। চিঠিতে লেখা ‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী না।’ অঞ্জন বিশ্বাসের দাবি পুতুল আত্মহত্যা করেছেন এর জন্য কেউ দায়ী নয় বলে সে চিঠি লিখে গেছেন। তবে পুতুলের বরিশাল বিএম কলেজের ছাত্র অভিজিৎ রায় জানান, তার বোনকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে এখন আত্মহত্যার প্রচার করা হচ্ছে। কালকিনি থানার ওসি কৃপা সিন্দু বালা বলেন, হত্যা না আত্মহত্যা তা ময়নাতদন্তের পর বলা যাবে। দাউদকান্দি (কুমিল্লা) : দাউদকান্দিতে অজ্ঞাত এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে দাউদকান্দি পৌরসভা কার্যালয়ের উত্তর পাশের ডোবা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। পুলিশ জানায়, লাশটি শনিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) : নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকা বিশ্বনন্দী ইউনিয়নের গাজীপুরা থেকে অজ্ঞাত পরিচয় এক (২৫) যুবতীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে গোপালদী ফাঁড়ি পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। আড়াইহাজার থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শেয়ার করুন