বার্সেলোনাকে লড়াইয়ে ফেরাল রিয়াল মাদ্রিদ

0
198
Print Friendly, PDF & Email

শেষ মুহূর্তে যে এত রোমাঞ্চ জমা ছিল, ভাবা যায়নি। শুধু অবাকই হতে হচ্ছে লা লিগার এবারের মৌসুমটি দেখে। ক্ষণে ক্ষণে বদলাচ্ছে শিরোপা জয়ের সমীকরণ। গত সপ্তাহে গেটাফের বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করেছিল বার্সেলোনা। কাতালানদের শিরোপা জয়ের আশা শেষ বলেই ধরে নিয়েছিলেন অনেকে। এমনকি কোচ জেরার্ডো মার্টিনোও হাল ছেড়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু সেই বার্সা শিবিরেই আবার আশার আলো জ্বালিয়েছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ। গত সপ্তাহে ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে ড্র করার পর গতকাল ভ্যালাদোলিদের বিপক্ষেও হোঁচট খেয়েছেন রোনালদো-বেনজেমারা। মাঠ ছেড়েছেন ১-১ গোলে ড্র করে।

টানা দুটি ম্যাচে পয়েন্ট খোয়ানোর পর এখন রিয়ালের শিরোপা জয়ের আশাই নিবুনিবু হয়ে পড়েছে। ৩৬ ম্যাচ শেষে ৮৪ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে রিয়াল। সমানসংখ্যক ম্যাচ খেলে বার্সেলোনার সংগ্রহ ৮৫ পয়েন্ট। আর ৮৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। এবারের মৌসুমে নিজেদের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা ও অ্যাটলেটিকো। এই ম্যাচটাই হয়তো হয়ে যাবে লা লিগার অলিখিত ফাইনাল। অন্যদিকে বার্সা-অ্যাটলেটিকোর অমঙ্গল কামনা করা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই রিয়াল মাদ্রিদ সমর্থকদের।

প্রতিপক্ষের মাঠে গতকাল শুরুতেই হোঁচট খেয়েছিল রিয়াল। মাত্র নয় মিনিটের মাথায় ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়েন দলের প্রাণভোমরা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ৩৪ মিনিটে অবশ্য সার্জিও রামোস দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ফ্রি-কিক থেকে দারুণ একটি গোল করে। প্রায় পুরো সময়ই এই এক গোলের ব্যবধানে এগিয়ে ছিল লস ব্লাঙ্কোসরা। কিন্তু খেলার একেবারে শেষপর্যায়ে, ৮৫ মিনিটে কপাল পোড়ে রিয়ালের। ভ্যালাদোলিদ সমতা ফেরায় হামবার্তো ওসোরিওর গোলে। ১-১ গোলের ড্র নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় কার্লো আনচেলত্তির শিষ্যদের।
হতাশাজনক এই ফলাফলের পর শিরোপা জয়ের আশা যে কার্যত শেষই হয়ে গেছে, সেটা স্বীকারও করে নিয়েছেন রামোস। কিন্তু এবারের মৌসুমের চালচিত্র দেখেই বোধ হয় শেষ পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেছেন এই স্প্যানিশ ডিফেন্ডার, ‘কার্যত আমাদের আশা শেষই হয়ে গেছে। কিন্তু গাণিতিকভাবে এখনো আমাদের সম্ভাবনা আছে। কাজেই শেষ পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যাওয়াটা আমাদের বাধ্যবাধকতা।’
অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ আর একটা ম্যাচ জিতলেই শেষ হয়ে যাবে রিয়ালের সব সম্ভাবনা। তখন নিজেদের শেষ দুই ম্যাচ জিতলেও নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের পেছনে ফেলতে পারবে না তারা। ১১ মে অ্যাটলেটিকো নিজেদের মাঠে খেলবে মালাগার বিপক্ষে। সেলটা ভিগোর মুখোমুখি হতে হবে রিয়ালকে। এদিনই হয়তো অনেকটা পরিষ্কার হয়ে যাবে শিরোপা জয়ের সমীকরণ। এর আগপর্যন্ত কাউকেই এগিয়ে বা পিছিয়ে রাখা যাচ্ছে না। যেভাবে রং বদলাচ্ছে এবারের স্প্যানিশ লিগ!

শেয়ার করুন