বিপর্যয়ের দায়ভার আ’ লীগকে নিতে হবে: ব্যারিস্টার রফিক

0
58
Print Friendly, PDF & Email

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া সরকারকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, আপনারা জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি-মুনের বার্তা না বুঝলে, দেশে বিপর্যয়ে নেমে আসবে। আর তার দায়ভার আপনাদেরকে বহন করতে হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) জাগপা আয়োজিত ‘চলমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট ও করণীয়’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

তিনি বলেন, আগামী নির্বাচন হবে কিনা এ নিয়ে সবাই উদ্বিগ্ন। জাতিসংঘ মহাসচিব দুই নেত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি বলেছেন, যেনতেন একটি নির্বাচন করলে চলবে না। সবার অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচন করতে হবে।

তিনি বলেন, জাতিসংঘ মহাসচিবের বার্তা যদি সরকার বুঝতে না পারে, তাহলে বিপর্যয়ে নেমে আসবে। আর এর দায়ভার আওয়ামী লীগকে বহন করতে হবে।

ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের কোনো নাগরিক বলেনি- তত্ত্বাবধায়ক সরকার বাতিল কর। সরকার গায়ের জোরে ক্ষমতায় থাকতে সংবিধান পঞ্চদশ সংশোধনী এনেছে। আদালতের রায়ে আরো দুই বার এই ব্যবস্থা বহাল থাকার কথা উল্লেখ করা হলেও সরকার তা মানেনি।

তিনি বলেন, নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ জয়ী হতে পারবে না। আর এটা জেনেই সরকার এই জনগুরুত্বপূর্ণ বিধানটি বাতিল করেছে। আমরা স্পষ্ট বলে দিতে চাই- শেখ হাসিনার অধীনে আমরা কোনো নির্বাচনে যাবো না।

হরতাল আহ্বানকারীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হত্যা করতে পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর নির্দেশের জবাবে রফিকুল বলেন, তিনি রাষ্ট্রের নাগরিক হত্যা করার হুমকি দিয়েছেন। তারপরেও তিনি কিভাবে এখনো মন্ত্রিসভায় থাকেন?

জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধানের সভাপতিত্বে এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- ইসলামিক পার্টির সভাপতি আবদুল মুবিন, এনডিপির সভাপতি গোলাম মোর্তুজা, এনপিপির সাধারণ সম্পাদক ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ প্রমুখ।

শেয়ার করুন