নগরীর গণকপাড়ায় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ কাল রাজশাহীর পথে বিরোধী নেতাকর্মীদের ব্যাপক হারে গ্রেফতার : রোডমার্চ স্থগিত

0
131
Print Friendly, PDF & Email

রাজশাহী অভিমুখে রোডমার্চ কর্মসূচি স্থগিত করেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঐক্যফ্রন্টের রোডমার্চ কর্মসূচি স্থগিতের কথা জানান। তিনি বলেন, ঐক্যফ্রন্টের নেতারা আলোচনা করে রোডমার্চ কর্মসূচি স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে রাজশাহীতে শুক্রবার সমাবেশ হবে। এদিকে নাগরিক ঐক্যর আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, রাজশাহী অভিমুখে রোডমার্চ কর্মসূচিতে ৬টি জায়গায় পথসভার কথা ছিল। এসব এলাকায় পুলিশ গণহারে নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করছে। কেউ এলাকায়ও থাকতে পারছে না। এ কারণে রোডমার্চ কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে। অথচ সংলাপে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কোনো নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হবে না। ৯ নভেম্বর জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মহাসমাবেশের স্থান গণকপাড়ায় : আগামীকাল ৯ নভেম্বর শুক্রবার রাজশাহীতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মহাসমাবেশের অনুমতি মিলেছে নগরীর গণকপাড়ায়। রাজশাহী মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে ঐতিহাসিক মাদ্রাসা ময়দানের পরিবর্তে নগরীর প্রাণকেন্দ্র গণকপাড়ায় সমাবেশ করার অনুমতি প্রদান করা হয়। এর আগে গত মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তারের সাথে সাক্ষাতে যান রাজশাহী বিএনপি নেতৃবৃন্দ। তাদের দাবি অনুযায়ী সমাবেশের স্থান না পাওয়ায় ুব্ধতা প্রকাশ করেছেন নেতৃবৃন্দ। আরএমপি কমিশনারের সাথে সাক্ষাৎকালে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অন্যতম উপদেষ্টা, সাবেক মেয়র ও সংসদ সদস্য জননেতা মিজানুর রহমান মিনুর নেতৃত্বে এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির রাজশাহী বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহিন শওকত খালেদ, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক, মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সহ-সম্পাদক ও মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন, বোয়ালিয়া থানা বিএনপির সভাপতি সাইদুর রহমান পিন্টু, রাজপাড়া থানা বিএনপির সভাপতি শওকত আলী ও মহানগর যুবদলের সাবেক সভাপতি ওয়ালিউল হক রানাসহ নেতৃবৃন্দ। সভায় সমাবেশ সুষ্ঠু ও সুন্দর করে সমাপ্ত করতে বিভিন্ন ধরনের ৬টি কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটির সদস্যগণকে সমাবেশের সময় এবং পূর্বে তাদের স্ব স্ব দায়িত্ব পালন করার জন্য মিজানুর রহমান মিনু নির্দেশ প্রদান করেন। : এর আগে গতকাল বুধবার সকালে নগরীর ভুবন মোহন পার্কে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু বলেছিলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের রাজশাহী বিভাগীয় জনসভার জন্য পুলিশের অনুমতির কোনো তোয়াক্কা করা হবে না। পুলিশ অনুমতি না দিলেও শুক্রবার দুপুর ২টায় রাজশাহী মাদ্রাসা ময়দানেই জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভা হবে। তিনি বলেন, সংলাপের সময় স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীই বলেছেন সভা-সমাবেশে কোনো বাধা নেই। সমাবেশের জন্য এরপর আর কারো অনুমতির প্রয়োজন পড়ে না। তাই শুক্রবার জেএসসি পরীা অনুষ্ঠিত হওয়ার পরই মাদ্রাসা ময়দানে অবস্থান নেবে ঐক্যফ্রন্টের নেতাকর্মীরা। সেখানে জুমার নামাজ আদায় করবেন তারা। এরপরই জনসভা শুরু হবে। :দিনকাল রিপোর্ট :

শেয়ার করুন