নিষ্ঠুরতা দিয়ে নিষ্ঠুর ছেলেকে শায়েস্তা!

0
523
Print Friendly, PDF & Email

মাস খানেক আগে বাবাকে গাছে বেঁধে নির্মমভাবে মারপিট করে চুল-দাড়ি কেটে দিয়েছিল মাদকাসক্তপুত্র ছেলে। ছেলের দায়ের কোপে আহত হয়ে দীর্ঘ দিন হাসপাতালে চিকিৎসা নেন ওই অসহায় বাবা । দুই-তিন দিন আগে হাসপাতালের চিকিৎসা শেষে তিনি বাড়ি আসেন। ফিরে এসে জাহাঙ্গীর যে হাত দিয়ে তার বাবার ওপর নির্যাতন চালিয়েছিল, সেই হাতই শরীর থেকে কেটে বিচ্ছিন্ন করে দিলেন তার বাবা জাহেদ আলী। এ যেন নিষ্ঠুর ছেলেকে নিষ্ঠুরতা দিয়েই শায়েস্তা করা। তার পর পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন অসহায় জাহেদ আলী। তিনি তার আরেক ভাইকে সঙ্গে নিয়ে ধারলো অস্ত্র দিয়ে অবাধ্য ছেলের ডান হাতের কুনুই পর্যন্ত কেটে বিছিন্ন করে ফেলেন। রবিবার দুপুরে সংঘটিত কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীর সহশ্রাম-ধূলদিয়া ইউনিয়নের বাগপাড়া গ্রামের এ ঘটনা নিয়ে এলাকায় তোলপাড় চলছে। পুলিশ এ ঘটনায় ভুক্তভোগী বাবাকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসেন। এলাকাবাসী জানিয়েছে, জাহাঙ্গীর এলাকায় খুবই খারাপ ছেলে বলে পরিচিত। চুরি, ডাকাতি, বখাটেপনাসহ সব ধরণের অপরাধে তার সংশ্লিষ্টতা ছিল। তার অত্যাচারে এলাকাবাসীও অতিষ্ঠ ছিল। তার জন্য সাবেক মেম্বার বাবাকে সমাজে হেয়প্রতিপন্ন হতে হতো। এ সবের প্রতিবাদ করাতে সম্প্রতি তাতে নাজেহাল হতে হয়। এ কারণে লজ্জায় ও অপমানে হাসপাতালে থেকে নিরবে শুধু কেঁদেছেন তিনি। বাড়িতে ফিরে এলে বাবাকে আবারও মারতে যায় ছেলে। এ অবস্থায় রোববার দুপুরে অবাধ্য ছেলেকে সুযোগমতো পেয়ে তার স্বজনদের সহযোগিতায় মাটিতে ফেলে ধারলো অস্ত্র দিয়ে ডান হাতের কুনুই পর্যন্ত কেটে বিচ্ছিন্ন করে ফেলেন বাবা। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে বাজিতপুরের জহুরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজে পাঠানো হয়। আহত জাহাঙ্গীরের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, অতীষ্ঠ ও বাধ্য হয়ে সাবেক জনপ্রতিনিধি জাহেদ আলী এ কাজ করেছেন। মাদকাসক্ত ছেলেকে একবার তার বাবা-মা পুলিশে দিয়েছিল। তার ১৮ মাসের সাজাও হয়েছিল। পরে পাঁচ-ছয় মাস জেল খেটে জামিনে এসে বাবা-মা ও অন্য স্বজনের ওপর চড়াও হয়। তারা জানান, জেল দিলেও কোনো লাভ হয় না। জেল থেকে বের হয়ে সে একই কর্মকাণ্ড করে। ভবিষ্যতে সে যেন আর এ ধরণের অপকর্ম করতে না পারে তাই তারা এ নিষ্ঠুরতায় বাধ্য হয়েছে। কটিয়াদী থানার উপ-পরিদর্শক মো. কামরুল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ছেলের বিরুদ্ধে চুরি, ডাকাতি, মাদকাসক্তিসহ বহু অভিযোগ আছে। সে বেশ কয়েকবার জেলও খেটেছে। কিন্তু তার অত্যাচার-নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে বাবা হয়ত এপথ বেছে নিয়েছে। তিনি জানান, বাবা জাহেদ আলীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিচ্ছিন্ন হাতটিও পুলিশ উদ্ধার করেছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে

শেয়ার করুন