নির্বাচন পেছানোর জন্য ইসিতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের চিঠি

0
40
Print Friendly, PDF & Email

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সিডিউল এক মাস পিছিয়ে দিতে প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে (সিইসি) চিঠি দিয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। গতকাল রবিবার ইসিতে চিঠিটি পাঠান ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি চিঠিতে লেখেন, ‘বিএনপি, ঐক্যফ্রন্ট ও ২০-দলীয় জোট গণতন্ত্র উদ্ধারের অংশ হিসেবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অধিকাংশ রাজনৈতিক দলের মতামত উপেক্ষা করে নির্বাচন কমিশন যে তফসিল দিয়েছে তা গ্রহণযোগ্য নয়। কারণ এত সংক্ষিপ্ত সময়ের মধ্যে সব রাজনৈতিক দলের পক্ষে বিভিন্ন কার্যক্রম সম্পন্ন করা সম্ভব নয়।’ এর আগে দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে ঐক্যফ্রন্ট জানায়, আন্দোলনের অংশ হিসেবে জাতীয় নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঐক্যফ্রন্ট। তবে নির্বাচনের শিডিউল পেছাতে হবে। : সংবাদ সম্মেলনে ঐক্যফ্রন্টের লিখিত বক্তব্যে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, গণতন্ত্রের সংকট সমাধানে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট সব সময় আলাপ-আলোচনা ও সমঝোতাকে গুরুত্ব দিয়েছে। সেই লক্ষ্যে ঐক্যফ্রন্ট সরকারকে চিঠি দিয়ে সংলাপের আহ্বান জানায়। সেই আহ্বানের পরিপ্রেক্ষিতে সরকারি দলের আমন্ত্রণে ১ ও ৭ নভেম্বর গণভবনে দুই দফা সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুঃখজনকভাবে এই সংলাপে সরকারি দলের পক্ষ থেকে বর্তমানের গভীর সংকট থেকে উত্তরণের পথে ন্যূনতম সমঝোতা করার মানসিকতা আমরা দেখতে পাইনি। : সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য যে ৭ দফা দাবি আমরা সরকারের কাছে পেশ করেছিলাম, সেগুলোর প্রায় সবগুলোই তারা নাকচ করেছেন। এমনকি বর্তমান সংবিধান সংশোধন না করেও যে দাবিগুলো পূরণ করা যায়, তার প্রায় সবগুলোর ব্যাপারে তারা কোনো আশ্বাস তো দেনইনি, উপরন্তু সেগুলোর কয়েকটিকে সংবিধানবহির্ভূত বলেও বিভ্রান্তি ছড়িয়েছেন। : আওয়ামী লীগের জোটে আসতে পারে যুক্তফ্রন্ট : ওবায়দুল কাদের : আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমাদের সঙ্গে যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন করতে পারে। যুক্তফ্রন্টের সঙ্গে আমাদের অ্যালায়েন্স হতেও পারে। আলোচনা চলছে। তবে নিজেদের প্রার্থীদের মনোনয়ন দেব। আসন ভাগাভাগি হলে আমাদের প্রার্থী প্রত্যাহার করে ফেলা হবে। তিনি রাজনৈতিক জোটগুলোর দাবির পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ভোটের তারিখ পিছিয়ে দিলে তাতে আওয়ামী লীগ আপত্তি করবে না বলেও জানিয়েছেন। : গতকাল রবিবার বিকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের সভা শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, জোটের দলদের বলা হয়েছে। জনগণের কাছে জিততে পারে, গ্রহণযোগ্যদের নমিনেশন দেয়া হবে। নিজেদের অগ্রহণযোগ্যদের ও বাদ দেব। ঐক্যফ্রন্ট বিএনপির বিপক্ষে লড়তে হবে। তাদের তো দুর্বল দল মনে করলে চলবে না। নির্বাচন পেছানোর ঐক্যফ্রন্টের দাবির বিষয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন পেছানোর ব্যাপারে দাবি থাকলে তা ইসির এখতিয়ার। নির্বাচন কমিশন যদি সময় বাড়াতে চায়, সেখানে আওয়ামী লীগের আপত্তি থাকবে না। ওবায়দুল কাদের জানান, আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জমার শেষ সময় ১২ নভেম্বর সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। এরপর ১৪ নভেম্বর সকাল ১১টা থেকে মনোনয়নপ্রার্থীদের সাক্ষাৎকার গ্রহণ করা হবে ধানমন্ডি ৩/এ অফিসে। একদিনেই এই মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার শেষ করা হবে। : তিনি বলেন, নির্বাচন পেছাবে কী না পেছাবে সেটা নির্বাচন কমিশনের ব্যাপার। নির্বাচনের শিডিউল সংক্রান্ত সব বিষয় নির্বাচন কমিশনের এখতিয়ারে। নির্বাচন পেছালে আওয়ামী বা ১৪ দল আপত্তি করবে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের তফসিল ঘোষণাকে আমরা স্বাগত জানিয়েছি। কমিশন নির্বাচন পেছাতে চাইলে দলীয়ভাবে আমরা কোনো আপত্তি করব না।’ তবে নির্বাচন পেছানো হলে তা যৌক্তিকভাবে করতে হবে এবং যে দলগুলো জোটবদ্ধভাবে নির্বাচন করবে, তাদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে তা করতে হবে বলে মন্তব্য করেন কাদের। ২৩ ডিসেম্বর ভোটের দিন রেখে নির্বাচন কমিশন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের যে তফসিল ঘোষণা করেছে, সেখানে ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা এবং ২৯ নভেম্বর পর্যন্ত প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সময় রাখা হয়েছে। সংবিধান অনুযায়ী, ২০১৯ সালের ২৮ জানুয়ারির মধ্যে এ নির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে নির্বাচন কমিশনের। তত্ত্বাবধায়ক সরকার দাবিতে পাঁচ বছর আগে নির্বাচন বর্জন করা বিএনপি এবারও নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি করে আসছিল। পাশাপাশি দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি ছিল তাদের। : কিন্তু এসব দাবির বিষয়ে সরকারের সাড়া না পেয়ে গণফোরাম সভাপতি কামাল হোসেনের নেতৃত্বে গঠিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যোগ দেয় বিএনপি। কিন্তু আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাদের দুই দফা সংলাপেও কোনো সমঝোতা হয়নি। ঐক্যফ্রন্ট সমঝোতার আগে তফসিল ঘোষণা না করার দাবি জানালেও গত বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশে ভাষণে একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা। : বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় ওই তফসিলকে ‘ক্ষমতাসীনদের ইচ্ছার প্রতিফলন’ হিসেবে বর্ণনা করেছিলেন। বিএনপির সাবেক নেতা বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন যুক্তফ্রন্টও নির্বাচন সাত দিন পেছানোর দাবি জানিয়েছে। দেশের ক্রিকেটের প্রয়োজনে সাকিব আল হাসানকে নির্বাচনে আসতে নিরুৎসাহিত করা হলেও ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফিকে কেন আনা হচ্ছে জানতে চাইলে কাদের বলেন, মাশরাফির বিষয়টি দীর্ঘদিন আগে থেকেই সুরাহা হয়ে আছে। সেও নির্বাচনি এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে যাচ্ছে। সাকিবের বিষয়টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, দেশের স্বার্থে আগামী বিশ্বকাপ পর্যন্ত তাকে ক্রিকেটে থাকতে হবে। আমাদের দলের চেয়ে দেশের স্বার্থ বড়। তাই সাকিবকে ক্রিকেটে থাকতে বলা হয়েছে। অন্যদের মধ্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, দীপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, একেএম এনামুল হক শামীম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।দিনকাল রিপোর্ট :

শেয়ার করুন