জ্বালানির দাম বাড়বে, কমবে স্বর্ণের : বিশ্বব্যাংক

0
633
Print Friendly, PDF & Email

আগামী বছর তেল, প্রাকৃতিক গ্যাসসহ সব ধরনের জ্বালানির দাম গড়ে ২৫ শতাংশ বাড়বে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্বব্যাংক। এর ফলে খাদ্যশস্য, সারসহ অন্যান্য নিত্যপণ্যের দামের ওপরও চাপ বাড়বে। তবে স্বর্ণের দাম কমবে। বিশ্বব্যাংকের সর্বশেষ ‘কমোডিটি মার্কেট আউটলুক’ প্রতিবেদনে এ পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পেট্রোলিয়াম রফতানিকারক দেশগুলো (ওপেক) দীর্ঘদিন পরে উৎপাদন সীমিত করার প্রস্তুতি নেয়ায় আগামী বছর অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি বেড়ে ৫৫ ডলার হতে পারে। এর আগে জুলাইয়ে দেয়া প্রতিবেদনে বিশ্বব্যাংক উল্লেখ করেছিল অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম ৫৩ ডলার হতে পারে। কিন্তু তেল উত্তোলন সীমিত করার সিদ্ধান্তের পর পূর্বাভাস পরিবর্তন করল সংস্থাটি। চলতি বছর অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি ছিল ৪৩ ডলার। প্রতি তিন মাস পর পর বিশ্বব্যাংক এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, আগামী বছরও বিশ্বব্যাপী ভালো ফলনের আশা করা হয়েছে। বিশেষত গমের ফলনে বিশ্বে নতুন রেকর্ড হবে। ২০১৬-১৭ এই সময়কালে বিশ্বে চাল উৎপাদন ৪ শতাংশ বাড়তে পারে। বিশেষ করে এশিয়া অঞ্চলে চীন, ভারত, পাকিস্তান ও থাইল্যান্ডে চালের উৎপাদন বাড়বে। অন্যদিকে ভোজ্য তেল, বীজ উৎপাদন বাড়ায় আগামী বছর ভোজ্য তেলের দাম কম হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, আগামী বছর লৌহজাতসহ খনিজ সম্পদের মূল্য গড়ে ৪ দশমিক ১ শতাংশ হারে বাড়তে পারে। জিঙ্ক বা দস্তার মূল্য বাড়তে পারে ২০ শতাংশের বেশি। অন্যদিকে স্বর্ণের দাম কিছুটা কমতে পারে। আউন্স প্রতি স্বর্ণের দাম কমে হতে পারে ১ হাজার ২১৯ ডলার। কৃষি পণ্যের মূল্য আগামী বছর ১ দশমিক ৪ শতাংশ হারে বাড়ার পূর্বাভাসও দেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন