স্ত্রীর সঙ্গে কলহ, তিন মেয়েকে ‘জবাই করল’ বাবা

0
524
Print Friendly, PDF & Email

পারিবারিক কলহের জের ধরে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় এক বাবা তার তিন মেয়েকে গলা কেটে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে চকরিয়ার বদরখালী ইউনিয়নের পূর্ব পুকুরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে চকরিয়া থানার ওসি প্রভাস চন্দ্র ধর জানান।

হত্যাকাণ্ডের শিকার তিন শিশু হল- দেড় বছরের শারাবন তহুরা, আট বছর বয়সী নূরী জান্নাত শিউলী ও দশ বছরের আয়েশা সিদ্দিকা।

তাদের বাবা আব্দুল গণি (৩৮) ঘটনার পর থেকে পলাতক। তিনি পেশায় একজন দিনমজুর বলে জানান চকরিয়ার ওসি।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তিনি বলেন, স্ত্রী ফাতেমা বেগমের (৩৫) সঙ্গে গণির প্রায়ই ঝগড়া লেগে থাকত। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় ইউপি সদস্যের বাড়িতে সালিশ বৈঠক বসে। সালিশের শেষ দিকে সবার সামনেই গণি তার স্ত্রীকে পেটানোর হুমকি দেন।  

“পরিস্থিতি দেখে ইউপি সদস্য রাতে ফাতেমাকে ওই এলাকায় তার নানার বাড়িতে গিয়ে থাকার পরামর্শ দেন। এরপর ফাতেমা তার নানার বাড়িতে চলে যান। তবে তার তিন মেয়ে বাবার কাছেই ছিল।”

এরপর ফাতেমার ভাই আজগর আলী রাত সাড়ে ৩টার দিকে আব্দুল গণির ফোন পান। গণি তাকে বলেন, ফাতেমা যেন বাড়ি গিয়ে তার মেয়েদের দেখে যায়।

তার কথায় সন্দেহ হওয়ায় ভোরের দিকে ফাতেমা তার ভাইকে নিয়ে স্বামীর বাড়িতে আসেন এবং ঘরের মধ্যে তিন মেয়েকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন।  

খবর পেয়ে পুলিশ সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে বলে চকরিয়ার ওসি জানান।

তিনি বলেন, “ঘটনা দেখে মনে হচ্ছে, গণি মেয়েদের জবাই করার পর তাদের মামাকে ফোন করে খবর দেয়। তারপর নিজে পালিয়ে যায়।”

তাকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশ কাজ শুরু করেছে বলে জানান ওসি।

শেয়ার করুন