পাটগ্রামে জঙ্গি প্রশিক্ষণ ক্যাম্প, আটক ১৩

0
513
Print Friendly, PDF & Email

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার রহমতপুর শিফাইর কামাত এলাকায় জামায়াত নেতৃত্বাধীন জঙ্গি প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের সন্ধান মিলেছে।

মঙ্গলবার দুপুরে জামায়াত নেতৃত্বাধীন ওই প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে পাটগ্রাম থানা পুলিশ ১৩ জন শিবির নেতাকর্মীকে আটক করেছে। এসময় তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ জিহাদি বই ও প্রশিক্ষণের উপকরণ উদ্ধার করা হয়েছে।

পাটগ্রাম থানার ডিউটি অফিসার (এসআই) আশরাফুল আলম জানান, গোপন সংবাদ পেয়ে ওসি রেজাউল করিম ও ওসি (তদন্ত) মাহফুজ আলমের নেতৃত্বে একদল পুলিশ উপজেলার রহমতপুর এলাকার জঙ্গি প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে অভিযান চালায়। এসময় বিপুল পরিমাণ জিহাদি বই ও প্রশিক্ষণের বিভিন্ন উপকরণসহ ১৩ জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- বাড়ির মালিক জামায়াত নেতা আয়নাল হক প্রধান (৩২), পাটগ্রাম ইউনিয়নের রহমতপুর এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে মাসুদ রানা (১৯), একই এলাকার মোশারফের ছেলে ফরহাদ হোসেন (১৭), নজরুল ইসলামের ছেলে সাফিউল হোসেন (১৭), আজিজুল ইসলামের ছেলে জিয়াউর রহমান জিবু (২৫), শমসের আলীর ছেলে রোকনুজ্জামান (২৫), একই ইউনিয়নের প্রাণকৃষ্ণ এলাকার সোলায়মান আলীর ছেলে মোহাম্মদ হাসান (২২), জগতবেড় ইউনিয়নের পশ্চিমজগতবেড় এলাকার মাহবুবের ছেলে নুর আলম(১৬), আমিনুর হকের ছেলে আলতাফ হোসেন (২২), একই ইউনিয়নের কচুয়ারপাড় এলাকার বদিয়ার রহমানের ছেলে নুর হুদা(১৯), হাতীবান্ধা উপজেলার ফকিরপাড়া ইউনিয়নের দালালপাড়া এলাকার আবু বক্করের ছেলে আব্দুর রহিম(২০), একই উপজেলার বড়খাতা ইউনিয়নের বড়খাতা এলাকার আহম্মেদ হোসেন আলীর ছেলে শমসের আলী(৩৫), গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার নান্দিশহর এলাকার সহিদুল ইসলামের ছেলে মোহাম্মদ রতন মিয়া(২২)।

অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মাহফুজ আলম সাংবাদিকদের জানান, উপজেলার রহমতপুর সীমান্ত এলাকায় স্থানীয় জামায়াতের অগ্রগামী রোকন সদস্য আয়নাল হক প্রধানের বাড়িতেই অতিগোপনে জঙ্গি প্রশিক্ষন ক্যাম্প গড়ে তোলা হয়। সেখানে ছোট ছোট উপ-দলে ভাগ করে রংপুর অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকার শিবির নেতাদের হাতেকলমে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। গোপন সংবাদ পেয়ে প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে ১৩ জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীকে আটক করা হয়।

এদের মধ্যে কেন্দ্রীয় শিবিরের নেতা লালমনিরহাটের বড়খাতার শমসের আলী ও গাইবান্ধার পলাশবাড়ির মোহাম্মদ রতন মিয়া ওই ক্যাম্পে প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করছিলেন। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম বলেন, ‘পাটগ্রাম ইউনিয়নের রহমতপুর শিফাইরকামাত এলাকায় জঙ্গি প্রশিক্ষণ ক্যাম্প থেকে ১৩ শিবির নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে। তাদের থানায় জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।’

শেয়ার করুন