গাজীপুরে দুই গাড়িতে আগুন, আটক ২৭

0
538
Print Friendly, PDF & Email

গাজীপুর শহরে স্ট্যান্ডে রাখা একটি বাসের পাশাপাশি কালীগঞ্জ উপজেলায় একটি কাভার্ডভ্যানে আগুন দিয়েছে অবরোধ সমর্থকরা।

মঙ্গলবার ভোরে শহরের শিববাড়ি বাসস্ট্যান্ড ও কালীগঞ্জের মূলগাঁও এলাকায় গাড়ি দুটিতে আগুন দেওয়া হয়। তবে এতে কেউ আহত হয়নি বলে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।  

ফায়ার সার্ভিসের জয়দেবপুর স্টেশনের কর্মকর্তা শাহিন আলম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে শিববাড়ি মোড় এলাকায় বাসস্ট্যান্ডে দাঁড় করিয়ে রাখা ‘ঢাকা পরিবহনের’ একটি বাসে পেট্রোলবোমা ছোড়া হয়। এতে আগুন ধরে বাসের আসনগুলো পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

খবর পেয়ে জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আগুন নেভায়।

প্রায় একই সময়ে মূলগাঁও এলাকা দিয়ে যাওয়ার সময় ‘প্রাণ’ কোম্পানির পণ্যবাহী একটি কাভার্ডভ্যান লক্ষ্য করে ইট ছোড়ে অবরোধ সমর্থকরা। আতঙ্কিত চালক ও তার সহকারী ভ্যান থামিয়ে নেমে পড়েন।

পরে গাড়ির চাকায় দাহ্য পদার্থ ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় অবরোধ সমর্থকরা। খবর পেয়ে  এলাকাবাসীর সহায়তায় পুলিশ গিয়ে আগুন নেভায়।

আগুনে কাভার্ডভ্যানের চাকা ও সামনের অংশ পুড়ে গেছে বলে কালীগঞ্জ থানার ওসি মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছেন।

এদিকে নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে গাজীপুরের শ্রীপুর, টঙ্গী ও জয়দেবপুর থানা এলাকায় সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ২৭ জনকে আটক করেছে পুলিশ।  

এদের মধ্যে ১৫ জনকে শ্রীপুর, আট জনকে জয়দেবপুর এবং চার জনকে টঙ্গী থেকে আটক করা হয়।

তারা সবাই বিএনপি ও জামায়াতে ইসলামীর কর্মী বলে সংশ্লিষ্ট থানার ওসিরা জানিয়েছেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গত ৫ জানুয়ারি ঢাকায় সমাবেশ করতে না পেরে সারাদেশে লাগাতার অবরোধের ডাক দেন। এর ফাঁকে ফাঁকে হরতালের ঘোষণা আসছে বিএনপি-জামায়াত জোটের পক্ষ থেকে।

সর্বশেষ রোববার ভোর থেকে সারা দেশে ৭২ ঘণ্টার হরতাল করছে তারা।

শেয়ার করুন