শ্রীপুরে ট্রেনে পেট্রোলবোমা, আহত ৫

0
490
Print Friendly, PDF & Email

শ্রীপুরে ঢাকা থেকে জামালপুরগামী কমিউটার ট্রেনে পেট্রোলবোমা ও ককটেল নিক্ষেপ করেছে দুর্বৃত্তরা। বোমাটি বিস্ফোরিত না হলেও ককটেলে আহত হয়েছেন ৫ যাত্রী।

সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে শ্রীপুর রেলস্টেশনে ঢাকা-ময়মনসিংহ রেলপথে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বিকেল সোয়া ৫টার দিকে ঢাকা থেকে জামালপুরগামী ৫১ নং আপ জামালপুর কমিউটার ট্রেনটি রওনা দেয়। সাড়ে ৫টার দিকে শ্রীপুর রেলস্টেশনে পৌঁছায়। এসময় কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই দুর্বৃত্তরা একটি পেট্রোলবোমা ও ককটেল নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। বোমাটি বিস্ফোরিত না হলেও ককটেল বিস্ফোরণে আহত হয় অন্তত ৫ জন যাত্রী।

জয়দেবপুর রেলস্টেশনের ম্যানেজার শহিদুল ইসলাম বাংলামেইলকে জানান, বিকেল সোয়া ৫টার দিকে ট্রেনটি জয়দেবপুর রেল স্টেশন ছেড়ে যায়। শ্রীপুর গিয়ে ঘটনা ঘটে।

শ্রীপুর প্রতিনিধি শিহাব খান জানান, বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে শ্রীপুর রেলওয়ে স্টেশনের দক্ষিণ পাশে আউট সিগন্যালের কাছে কমিউটার এক্সপ্রেসে ট্রেনে পেট্রোলবোমা চালানো হয়। ট্রেনটি স্টেশনে পৌঁছার আগেই শ্রীপুর ফরেস্ট অফিসের পাশের জঙ্গল থেকে চারজন তরুণ ইঞ্জিনে দুটি পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ করে। একটি বোমা বিস্ফোরিত হয়। এতে মো. হোসেন (৬০) ও কাজিম উদ্দিন (৪৫) নামে দুইজন যাত্রী তাৎক্ষণিকভাবে দগ্ধ হন। অপর দুজন আতঙ্কে ট্রেন থেকে লাফিয়ে নামার সময় আহত হন। ট্রেনটি স্টেশনে পৌঁছলে আহতদের শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। আহতদের সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

আহত হোসেন ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল উপজেলার কাদিরপুর গ্রামের বাসিন্দা ও কাজিম উদ্দিন গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর শহরের ভাংনাহাটি গ্রামের বাসিন্দা। তিনি চাউল ব্যবসায়ী। অপর আহতরা হলেন- ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলা পশু সম্পদ কার্যালয়ের এমএলএসএস আফাজ উদ্দিন (৫০) ও শ্রীপুর পৌর শহরের শান্তিবাগ এলাকার দিনমজুর মফিজ উদ্দিন (৬০)।

শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হাসান ইমাম বাংলামেইলকে জানান, আহতদের মধ্যে হোসেনের অবস্থা গুরুতর।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাংলামেইলকে জানিয়েছেন, পেট্রোলবোমা হামলাকারীদের শনাক্ত করা যায়নি।

শেয়ার করুন