তামিমের লক্ষ্য বিশ্বকাপে সেঞ্চুরি

0
39
Print Friendly, PDF & Email

বিশ্বকাপ মঞ্চে এর আগে বাংলাদেশ পা রেখেছে চারবার। পঞ্চমবারের মতো বিশ্বকাপ খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। কিন্তু ক্রিকেটের এ বড় মঞ্চে সেঞ্চুরি পাননি বাংলাদেশের কোনো ব্যাটসম্যান। এবার কাটবে সেঞ্চুরি-খরা? তামিম ইকবাল এ ব্যাপারে বেশ আশাবাদী। বাঁহাতি ওপেনার চান, এবার অন্তত কেটে যাক এ খরা। বিশ্বকাপ খেলতে দল দেশ ছাড়বে আজ রাতে। তবে তামিম যাবেন আগামীকাল। এ জন্য কিছুটা মন খারাপ তামিমের। বললেন, ‘একটু খারাপ লাগছে। সবার সঙ্গে যেতে পারলে ভালো লাগত।’ আজ সকালে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে একাই ব্যাটিং অনুশীলন করলেন। অনুশীলন শেষে এলেন সাংবাদিকদের সামনে। ব্যক্তিগত লক্ষ্য জানতে চাইলে বললেন, ‘বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কারও সেঞ্চুরি নেই। চেষ্টা করব, এ খরা ঘোঁচাতে। আমি না পারলেও আশা করব, অন্য কেউ এটা করবে।’ ২০০৭ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপ ছিল তামিমের প্রথম। ভারতের বিপক্ষে সেই ম্যাচে তামিমের মারকুটে চেহারা আজও উজ্জ্বল দর্শকের স্মৃতিতে। তবে বাঁহাতি ওপেনার সে ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারেননি। এবার ভিন্ন কিছু হবে? বললেন, ‘প্রথম বিশ্বকাপে আমি ওভাবে লক্ষ্য নিয়ে যাইনি। দ্বিতীয় বিশ্বকাপ ছিল ঘরের মাঠে। লক্ষ্য ঠিক করেও সেটা অর্জন করতে পারিনি। এবার বিশ্বকাপ ভিন্ন কন্ডিশনে। শুরুটা হলো চোট দিয়ে। আশা করি, শেষটা ভালো হবে।’ তামিমের চোট এখনো পুরোপুরি সারেনি। তবে এ নিয়ে ভাবনার কিছু নেই, ‘ব্যাটিং করতে কোনো সমস্যা হচ্ছে না। ইচ্ছা আছে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার। দুটো না পারি অন্তত একটি যাতে খেলতে পারি, সে চেষ্টা করব।’ তবে এ-ও জানালেন, ‘পুরো ফিট হয়েই খেলতে চাই। দলের বোঝা হতে চাই না। কেবল ব্যাটিং নয় ফিল্ডিংটাও গুরুত্বপূর্ণ। ফলে পুরো ফিট হয়েই মাঠে নামতে চাই।’ দেশে দলের সঙ্গে ঠিকমতো অনুশীলন করতে পারেননি তামিম। অনুশীলনে ঘাটতি থেকে গেল কি না। তামিম অবশ্য আশ্বস্ত করলেন, ‘দেশে দলের সঙ্গে অনুশীলন করতে পারিনি। দারুণ কিছু সেশন করতে পারিনি। তবে মূল অনুশীলন হবে ব্রিসবেনে। অস্ট্রেলিয়ার কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে ওই দুই সপ্তাহ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ওই সময়টার সদ্ব্যবহার করতে পারলে খুব একটা সমস্যা হবে না।’ তামিম অস্ট্রেলিয়ায় দলের সঙ্গে ২৮ জানুয়ারি ও অনুশীলনে যোগ দেবেন এর পরের দিন। ব্যাটিং পরিকল্পনা নিয়ে তামিম ভাবছেন শুরুটা নিয়ে, ‘আমাদের জয়-পরাজয় সাধারণত সুন্দর শুরু ও শেষের ওপর নির্ভর করে। আমরা যদি শুরুটা দারুণ করতে পারি, তাহলে ভালো কিছুই হবে। আমাদের ইতিহাসও তা-ই বলে। এ কারণে মনোযোগ এ দুটোতেই। আর উইকেটে গিয়েই মারা কঠিন। নতুন বলে, প্রথম ১০ ওভার দেখেশুনে খেলতে চাই।’

শেয়ার করুন