‘সরকার চোরাগোপ্তা জনসভার নয়া নজির স্থাপন করেছে’

0
676
Print Friendly, PDF & Email

আওয়ামী লীগের জনসভা সম্পর্কে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) সভাপতি শফিউল আলম প্রধান তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, ‘সরকার চোরাগোপ্তা জনসভার নয়া নজির স্থাপন করেছে।’ সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন। শফিউল আলম প্রধান বলেন, দেশে-বিদেশে রাজনৈতিক চোরাগোপ্তা হামলার খবর শোনা যায়। তবে রাজনীতির ইতিহাসে এবারই আওয়ামী লীগ সরকার চোরাগোপ্তা জনসভার নয়া নজির স্থাপন করেছে। তিনি বলেন, কুত্তা মার্কা নির্বাচনের কারণেই আওয়ামী লীগকে আজ চোরাগোপ্তার পথে হাঁটতে হচ্ছে। ডিএমপি কমিশনারের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের কর্মচারী। আপনারা আওয়ামী জমিদারের লাঠিয়াল নন। শেখ হাসিনার জন্য এক আইন এবং বেগম খালেদা জিয়ার জন্য আরেক আইন। সঠিক পথে হাঁটুন, মনে রাখবেন লীগ সরকারই শেষ সরকার নয়। প্রধান বলেন, প্রবাদে আছে ‘ভাত ছিটালে কাকের অভাব হয় না’ অথচ রাষ্ট্রের সকল শক্তিকে কাজে লাগানোর পরেও কেন সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের একাংশও ভরে নাই, তালাশ করলেই তার জবাবও পাবেন। রক্তে ভেজা বাংলাদেশের মাটি আর জালিম শাহী, কৃতদাস শাসনের বোঝা বহন করতে নারাজ। প্রধান আরো বলেন, তিনি (শেখ হাসিনা) আজ যে ভাষায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া’র কুৎসা করেছেন তা বস্তি ও পল্লীর ভাষাকেও হার মানায়। ইন্দুর-বান্দরদের কথায় নাচবেন না। এরা বঙ্গবন্ধুরও কোন কাজে আসে নাই। যে জাতি রক্ত দিতে শিখেছে, বন্দুক কামান দিয়ে তাদের দাবিয়ে রাখা যাবে না।

শেয়ার করুন