টি-টোয়েন্টিতে রেকর্ড গড়লো ওয়েস্ট ইন্ডিজ

0
84
Print Friendly, PDF & Email

দ্যা হিটার ম্যান ক্রিস গেইলের ঝড়ো ব্যাটিংয়ের সুবাদে টি-টোয়েন্টিতে রেকর্ড গড়লো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। রোববার সবচেয়ে বেশি রানের টার্গেট তাড়া করে জেতার কৃতিত্ব দেখায় ক্যারিবীয়রা। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২৩১ রান তাড়া করে জয় তুলে নেয়। জোয়ানেসবার্গে তারা জয় তুলে নেয় ৪ উইকেটে। ২০১০ সালে সর্বোচ্চ ২১৪ রান তাড়া করে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পায় অস্ট্রেলিয়া। গতকাল ক্যারিবীয়দের পক্ষে সর্বোচ্চ ৯০ রানের ইনিংস খেলেন মারকুটে ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল। ৪১ বলে ৭ ছক্কা ও ৯ চারে ইনিংসটি সাজান তিনি। চমৎকার ইনিংস খেলার সুবাদে ম্যাচ সেরা হয়েছেন ক্রিস গেইল। এছাড়াও ৩৯ বলে ৬০ রান করেন মারলন স্যামুয়েলস। ২ ছক্কা ও ৭ চারে এই রান করেন তিনি। দ্বিতীয় উইকেটে এ দুই ব্যাটসম্যান ১৫৬ রানের জুটি ভাঙলে দ্রুত উইকেট হারায় অতিথিরা। তবে শেষদিকে ড্যারেন সামির ৭ বলে ২০ রান করেন। এ সুবাদে ১৯.২ ওভারে ২৩৬ রান তুলে বিজয় উল্লাসে মেতে উঠে ক্যারিবীয়রা। এ জয়ে ১ ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ নিজেদের করে নিলো তারা। আর ৩ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে থাকলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দিনের শুরুতে টস ফিল্ডিং নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আর টি-টোয়েন্টিতে দ্বিতীয় দ্রুততম সেঞ্চুরি হাঁকান দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যান ফ্যাফ ডু প্লেসি। প্রোটিয়া অধিনায়ক ডু প্লেসি শতক পূর্ণ করেন ৪৬ বলে। সংক্ষিপ্ত ঘরানার এ ক্রিকেটে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ডটি ৪৫ বলের। জোহানেসবার্গে প্লেসি হাঁকান ১০টি বাউন্ডারি ও ৪টি ছক্কা। আর উইকেট দেয়ার আগে ডু প্লেসির ইনিংস থামে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ব্যক্তিগত দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১১৯ রানে। তার আগে কেবল অস্ট্রেলিয়ার অ্যারন ফিঞ্চের ১৫৬ ও নিউজিল্যান্ডের ব্্েরন্ডন ম্যাককালামের ১২৩ রানের ইনিংস রয়েছে। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এ নিয়ে ব্যক্তিগত শতক দেখা গেলো ১৩ বার। আর দ্িক্ষণ আফ্রিকার কোন ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরির দ্বিতীয় নজির এটি। ২০১২’র ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড সফরে ৪৫ বলে সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েন প্রোটিয়া ওপেনার রিচার্ড লেভি। ‘কিলার মিলার’ খ্যাত মারকুটে ব্যাটসম্যান ডেভিড মিলার গতকাল নিজের উইকেট দেয়ার আগে করেন ২৬ বলে ৪৭ রান। এতে ২০ ওভার শেষে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ পৌঁছে ২৩১ রান ৬ উইকেটে।

শেয়ার করুন