দেশের গণতন্ত্র মৃত, সংসদ ভুয়া : ড. মঈন খান

0
63
Print Friendly, PDF & Email

বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতির পাল্টা অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান। আজ শুক্রবার এক সভায় তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকারে থেকে যে ইতিহাস লিখে যাচ্ছে তা সংশোধন করতে হবে। তিনি বলেন, দেশের গণতন্ত্র এখন মৃত। বর্তমান সংসদ ভুয়া। মানুষের ভোটাধিকার নেই। এখন কথা বললেই সরকার মিথ্যা মামলা দিচ্ছে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য দলের নেতাকর্মীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে সর্বাত্মক আন্দোলনের প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানান আব্দুল মঈন খান। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে স্বাধীনতা ফোরাম আয়োজিত ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও আজকের বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটি (ডিআরইউ) মিলনায়তনে এ সভা অনুষ্ঠান হয়। সংগঠনের সভাপতি আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন যুবদল সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, বিএনপির তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সহ-সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, সাবেক ছাত্রনেতা এবিএম মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার পারভেজ আহমেদ, ফরিদ উদ্দীন আহমেদ, স্বাধীনতা ফোরামের প্রকৌশলী আজিজুল ইসলাম, এবিএম খালিদ হাসান, মুহাম্মদ ফারুকুল ইসলাম, নাগরিক ফোরামের সভাপতি মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. মঈন খান বলেন, ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করতে অবৈধ সরকার দেশ ও দেশের স্বার্থ জলাঞ্জলি দিতেও কুণ্ঠাবোধ করছে না। অন্যায়ভাবে ক্ষমতায় এসে সরকার নব্য বাকশাল কায়েম করেছে। পশ্চিমা বিশ্বের অনুকম্পা পাওয়ার আশায় সরকার বহির্বিশ্বে বাংলাদেশকে একটি সন্ত্রাসী রাষ্ট্র হিসেবে প্রমাণ করতে চাইছে। তিনি বলেন, এ সরকারের কারণে দেশের গণতন্ত্র এখন মৃত। কথা বললেই সরকার মামলা দিচ্ছে। আজ জনগণের ভোটের অধিকার নেই। বিএনপি নেতারা কথা বললেই ‘ভোটবিহীন নির্বাচনে’ ক্ষমতায় আসা এ সরকার মামলা দিচ্ছে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণে সর্বাত্মক আন্দোলনের প্রস্তুতি নিতে হবে। মঈন খান বলেন, বর্তমান সরকার যে ইতিহাস লিখছে, তা সংশোধন করতে হবে। লন্ডনের দ্য ইকোনমিস্ট পত্রিকায় বাংলাদেশের ওপর একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- বাংলাদেশ সরকার ইতিহাস রচনার কাজ করছে। ইতিহাস রচনার কাজ সরকারের নয়। তাদের কাজ হবে দেশের মানুষের কল্যাণ ও উন্নয়ন। শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বক্তব্যে পর ক্ষমতাসীনদের তীব্র সমালোচনার মধ্যেই মঈন খানের এই পাল্টা অভিযোগ। তবে আওয়ামী লীগ কিভাবে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করছে সে বিষয়ে বিস্তারিত তিনি বলেননি। বিএনপির এ নেতা বলেন, ইকনোমিস্টের প্রতিবেদনে এটা স্পষ্ট, বাংলাদেশের ইতিহাস বিকৃত করা হচ্ছে। তা অবশ্যই আমাদের সংশোধন করতে হবে। মঈন খান বলেন, বিএনপি সম্পর্কে নানা কথা বলা হয়। আমরা স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই, বিএনপি একটি উদার ও সব ধর্মের দল। এক অর্থে নিরপেক্ষ দল। তবে আওয়ামী লীগের মতো ধর্ম নিরপেক্ষতার দল নয়। তারা ধর্মনিরপেক্ষতার নামে ধর্মহীন দল। সরকার অবৈধভাবে ক্ষমতা ধরে রাখতে নানা ষড়যন্ত্র করছে বলেও অভিযোগ করে তিনি।

শেয়ার করুন