রোনালদোর হ্যাটট্রিক, রিয়ালের জয়ের রেকর্ড

0
26
Print Friendly, PDF & Email

রেকর্ড গড়লেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, রেকর্ড গড়ল তাঁর দল রিয়াল মাদ্রিদও। মহাতারকা কাল স্প্যানিশ লিগে হ্যাটট্রিকের রেকর্ড গড়লেন। একই সঙ্গে করলেন নিজের ২০০তম গোল। তাঁর হ্যাটট্রিকের ওপর ভর করেই ব্লাঙ্কোসরা লা লিগায় টানা ১৮ ম্যাচ জয়ের অনন্য সাফল্যের স্বাক্ষর রাখল। সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে কাল রিয়াল মাদ্রিদ জয় পেয়েছে ৩-০ গোলে। কিছু দিন আগেই স্প্যানিশ লিগে তেলমো জারার ২৫১ গোলের রেকর্ড ভেঙেছেন রোনালদোর প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসি। কাল রোনালদো একসঙ্গে ভাঙলেন দুই গ্রেট ফুটবলারের রেকর্ড। স্প্যানিশ লিগে ২২টি হ্যাটট্রিক নিয়ে এত দিন যৌথভাবেই সবার ওপরে ছিলেন ওই জারা আর রিয়াল গ্রেট আলফ্রেডো ডি স্তেফানো। কাল রোনালদো নিজের ২৩তম হ্যাটট্রিকটি করে ফেলায় জারা আর ডি স্তেফানোকে নিজেদের জায়গাটি ছেড়ে দিতে হলো আধুনিক ফুটবলের এই মহাতারকাকে। একই সঙ্গে লা লিগায় ১৭৯ ম্যাচে ২০০ গোল রোনালদোকে পৌঁছে দিয়েছে গ্রেটদের কাতারেই। টানা ১৮টি ম্যাচ জিতে রিয়াল গিয়ে দাঁড়িয়েছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার পাশেই। ২০০৫-০৬ মৌসুমে সাবেক ডাচ তারকা ও কোচ ফ্রাঙ্ক রাইকার্ডের অধীনে টানা ১৮টি ম্যাচ জিতেছিল বার্সেলোনা। কার্লো আনচেলত্তির রিয়ালের অবশ্য সুযোগ তৈরি হয়েছে বার্সেলোনাকে ছাড়িয়েও অনেকদূর এগিয়ে যাওয়ার। খেলার ৩৬, ৬৫ ও ৮১ মিনিটে সেল্টা ভিগোর জালে গোল তিনটি ঠেলেন রোনালদো। ৬৫ মিনিটের প্রথম গোলটি ছিল পেনাল্টি থেকে। পেনাল্টিটি অবশ্য আদায় করেন রোনালদো নিজেই। বল পায়ে তিনি দ্রুতগতিতে সেল্টার বক্সের মধ্যে ঢুকে পড়লে তাঁকে বাধা দেওয়ার জন্য ফাউলের আশ্রয় নেন ডিফেন্ডার জনি কাস্ত্রো। সঙ্গে সঙ্গে হলুদ কার্ডও দেখেন তিনি। প্রাপ্ত পেনাল্টিটি কাজে লাগাতে একেবারেই ভুল করেননি তিনি। এর আগে অবশ্য ম্যাচের ১০ মিনিটের মাথায় টনি ক্রুজের ক্রসে রোনালদো মাথা ছোঁয়ালেও তা ঠেকিয়ে দেন সেল্টা গোলরক্ষক। ফিরতি বলে অবশ্য সার্জি রামোসের শট পোস্টের বাইরে দিয়ে চলে যায়। দ্বিতীয়ার্ধেও সেল্টার ওপর চাপ অব্যাহত রাখে রিয়াল। ৬৫ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলটি পেয়ে যান রোনালদো। আবারও টনি ক্রুজের বাড়ানো বলে হেড করে ক্লিয়ার করতে গিয়ে ওই বক্সের ভেতরেই ওঁৎ​ পেতে থাকা রোনালদো দলকে এগিয়ে দেন ২-০ গোলে। ৮১ মিনিটে ব্রাজিলীয় ডিফেন্ডার মার্সেলোর পাস থেকে লা লিগায় নিজের ২৩তম হ্যাটট্রিকটি পূরণ করেন দুই বারের ফিফা বর্ষসেরা এই পর্তুগিজ তারকা। ম্যাচ শেষে রোনালদোর হয়ে সংবাদ সম্মেলনে ছিলেন সার্জিও রামোস। তিনি বলেছেন, ‘রোনালদো যেসব রেকর্ড একে একে নিজের করে নিচ্ছে, তা অবিশ্বাস্য। সত্যিকার অর্থে রোনালদোর অর্জনগুলো বর্ণনা করতে নতুন নতুন শব্দের উদ্ভাবন দরকার। তার মতো একজন ফুটবলারকে দলে রাখতে পেরে রিয়াল মাদ্রিদ নিজেদের গর্বিত বোধ করে।

শেয়ার করুন