ঈদের পর অহিংস আন্দোলন

0
48
Print Friendly, PDF & Email

‘আন্দোলনের নামে সহিংসতা সৃষ্টি করলে ছাড় দেয়া হবে না’ সরকারি দলের নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, ‘আপনারা আপনাদের বক্তব্যে অটুট থাকেন। ঈদের পরে  আন্দোলন হবে। তবে তা অহিংস। তাতে যদি বাধা দেয়া হয় তাহলে জনগণ সমুচিত জবাব দেবে।’

‘আওয়ামী লীগ যে ভাষায় কথা বলবে জনগণ সে ভাষায় জবাব দেবে’ বলে হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে স্বাধীনতার স্বপক্ষের প্রজন্ম আয়োজিত “বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ ও প্রথম প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান” শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন ও আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মির্জা আব্বাস বলেন, ‘আওয়ামী লীগের অন্যায় কাজে বিএনপি খেসারত দিবে না। আওয়ামী লীগ যাদের নির্যাতন করে পঙ্গু করেছে তাদের পরিবার যদি কোনো অন্যায় কাজ করে বিপথে যায় এর দায় দায়িত্ব আওয়ামী লীগের নিতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘এ সরকারের মন্ত্রীরা যে ভাষায় কথা বলে তা রাজনৈতিক ভাষা হতে পারে না। তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু গণবাহিনী গঠন করেছিলেন। আর আওয়ামী লীগ ৩৬ হাজার লোককে হত্যা করেছিল। এখন শেখ হাসিনাকে খুশি করে মন্ত্রীত্ব টিকিয়ে রাখতে জিয়া পরিবার ও বিএনপি নেতাদের নামে মিথ্যা আবোল তাবোল বক্তব্য দিচ্ছেন ইনু।’

আব্বাস বলেন, ‘শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে যদি আওয়ামী লীগ যথাযথ সম্মান দিত তাহলে কোনো আলোচনা সমালোচনা হতো না। শেখ মুজিব সম্পর্কে কোনো উক্তি হতো না যা তার সম্মানহানি ঘটায়। ইতিহাস কেউ ইচ্ছা করে তৈরি করতে পারে না। আওয়ামী লীগকে মনে রাখতে হবে শহীদ জিয়াউর রহমান একজন সৈনিক। তাকে অবজ্ঞা করলে তাদের বেলায়ও হতে পারে।’

ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তারেক উজ জামানের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, মুক্তিযোদ্ধা দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান প্রমুখ।

শেয়ার করুন