বিশ্বকাপে হেরে সহিংস বুয়েন্স আয়ার্স, আটক ৬০

0
39
Print Friendly, PDF & Email

ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ ফুটবল ফাইনালে জার্মানির সঙ্গে হেরে যাওয়ার পর আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েন্স আয়ার্সে ফুটবল সমর্থকরা ভাঙচুর করেছেন।

এ সময় সহিংসতা ঠেকাতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস, জলকামান ও রাবার বুলেট ছোড়ে। এ ঘটনায় পুলিশ ৬০ জনকে আটক করেছে।

রোববার রাতে ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত জার্মানির সঙ্গে বিশ্বকাপ  ফাইনালে হেরে যাওয়ার পর আর্জেন্টিনার বিক্ষুব্ধ ফুটবল সমর্থকরা ভাঙচুর করতে শুরু করেন।

সংবাদমাধ্যম জানায়, ১০ হাজারের বেশি আর্জেন্টিনার বিক্ষুব্ধ ফুটবল সমর্থক বিশ্বকাপ ফাইনালে হেরে যাওয়ার পর বেপরোয়াভাবে ভাঙচুর করতে শুরু করেন।

রাজধানী বুয়েন্স আয়ার্সের কেন্দ্রীয় ওবেলিস্ক স্থাপনায় বড় পর্দায় খেলা দেখার জন্য হাজির হন। খেলায় হেরে যাওয়ার পর পরই তারা বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন এবং ভাঙচুর শুরু করেন।

দাঙ্গা পুলিশের এক কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যমকে জানান, উত্তেজিত ফুটবল সমর্থকেরা আর্জেন্টিনা জার্মানির কাছে ১-০ গোলে হেরে যাওয়ার পর পরই আশেপাশের দোকানপাটে পাথর ছুড়তে থাকেন। রাস্তার পাশে সড়কবাতি ভেঙে ফেলেন ও কাছাকাছি থাকা একটি থিয়েটার হল ভেঙে ফেলেন।

বিক্ষুব্ধ সমর্থককে ছত্রভঙ্গ করতে গিয়ে অন্তত ২০ জন পুলিশ সদস্য আহত হন।

তিনি বলেন, এর আগে সব বয়সের নারী-পুরুষ ওবেলিস্কে জড়ো হন। তারা এই চত্বরে আগুন জ্বালিয়ে- ‘আর্জেন্টিনা, আর্জেন্টিনা, আর্জেন্টিনা’ ধ্বনি দিতে থাকেন।

তারা খেলায় মেসির ক্রমাগত ব্যর্থতায় ক্ষিপ্ত হন এবং হেরে যাওয়ার পর সহিংস হয়ে ওঠেন।

 মেসি সম্পর্কে বলতে গিয়ে ৩১ বয়সী আর্জেন্টিনা ফুটবল দলের সমর্থক ইডুরাডো রড্রিগেজ বলেন, মেসি এখন পর্যন্ত ম্যারাডোনা হয়ে উঠতে পারেননি।

তবে তিনি বলেন, আমরা আমাদের ফুটবল যোদ্ধাদের জন্য গর্ব বোধ করি।

শেয়ার করুন