কলম্বিয়াকে হারিয়ে সেমিফাইনালে ব্রাজিল

0
50
Print Friendly, PDF & Email

ব্রাজিলের আক্রমণভাগ নিয়ে চলছিল বিস্তর সমালোচনা। নেইমার ছাড়া যে আর কেউই হতে পারছিলেন না ভরসার প্রতীক। হাল্ক তবুও কিছু ঝলক দেখিয়েছেন। কিন্তু ফ্রেড-জো-অস্কাররা ছিলেন নিষ্প্রাণ হয়ে। কলম্বিয়ার বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে তাই গোল করার দায়িত্বটাও যেন নিজেদের কাঁধেই তুলে নিলেন ব্রাজিলের ডিফেন্ডাররা। যাঁদের সামলানোর কথা ছিল রক্ষণভাগের দায়িত্ব, তাঁরাই আজ করলেন ব্রাজিলের জয়সূচক গোল দুইটি।
ম্যাচের শুরুতেই, মাত্র ছয় মিনিটের মাথায় অধিনায়ক থিয়াগো সিলভা আর দ্বিতীয়ার্ধে, ৬৯ মিনিটে ডেভিড লুইজ। এই দুই গোলে ভর করেই ২-১ ব্যবধানের জয় দিয়ে সেমিফাইনালে পা রেখেছে স্বাগতিকেরা। শেষ চারের লড়াইয়ে তাদের প্রতিপক্ষ জার্মানি।
কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত আসার পথে অনেক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে ব্রাজিলকে। অন্যদিকে টানা চারটি ম্যাচ জিতে দাপটের সঙ্গেই শেষ আটের টিকিট কেটেছিল কলম্বিয়া। কিন্তু আজ সেই দাপুটে কলম্বিয়াকে খুঁজেই পাওয়া যায়নি প্রথমার্ধের খেলায়। ব্রাজিলও যেন মাঠে নেমেছিল নিজেদের সক্ষমতা প্রমাণের মিশন নিয়ে। প্রথম ৪৫ মিনিট ব্রাজিলের মুহুর্মুহু আক্রমণে রীতিমতো পিষ্ট হয়েছে কলম্বিয়ার রক্ষণভাগ।
খেলা শুরুর মাত্র ছয় মিনিটের মাথায় দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ব্রাজিলের অধিনায়ক থিয়াগো সিলভা। নেইমারের কর্নার কিক থেকে ফাঁকায় বল পেয়ে সেটা জালে জড়াতে কোনো ভুল করেননি ব্রাজিলিয়ান এই ডিফেন্ডার। এর পরেও আরও দুই-তিনবার ব্যবধান বাড়িয়ে নেওয়ার সুযোগ পেয়েছিল সেলেসাওরা। ২০ ও ২৮ মিনিটে হাল্কের দুইটি শট দারুণভাবে রুখে দিয়েছেন কলম্বিয়ার গোলরক্ষক ডেভিড অসপানা।
অপরদিকে ব্রাজিলিয়ান রক্ষণভাগকে সত্যিকারের পরীক্ষার মুখে পড়তে হয়েছে মাত্র একবারই। ২১ মিনিটে দ্রুতগতির পাল্টা আক্রমণ থেকে ব্রাজিলের রক্ষণভাগে ভীতি ছড়িয়েছিলেন জেমস রদ্রিগেজ। কিন্তু সেখান থেকে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে বল পাঠাতে পারেননি কলম্বিয়ার খেলোয়াড়েরা।
দ্বিতীয়ার্ধে কলম্বিয়া খেলায় ফেরার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু ৬৯ মিনিটে ফ্রি-কিক থেকে দুর্দান্ত এক গোল করে ব্রাজিলের জয় প্রায় নিশ্চিতই করে ফেলেন লুইজ।
শেষ ১৫ মিনিট অবশ্য ঘুরে দাঁড়ানোর মরনপণ লড়াই চালিয়েছে কলম্বিয়া। ৮০ মিনিটে পেনাল্টি থেকে একটি গোল শোধও করে দিয়েছিলেন জেমস রদ্রিগেজ। বাকি সময়টাও একের পর এক আক্রমণ চালিয়ে গেছেন কলম্বিয়ার খেলোয়াড়েরা। কিন্তু সমতাসূচক গোলটি করতে পারেননি। ২-১ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে স্বাগতিক ব্রাজিল।
নিজেদের মাটিতে শিরোপা জয়ের পথে আরও একটি বড় বাধা পেরিয়ে গেলেও ব্রাজিলের সমর্থকদের দুশ্চিন্তায় ফেলে দিয়েছেন অধিনায়ক সিলভা ও নেইমার। দুইটি হলুদ কার্ড দেখায় জার্মানির বিপক্ষে ম্যাচটি খেলতে পারবেন না ব্রাজিলের রক্ষণভাগের প্রধান ভরসা সিলভা। অন্যদিকে নেইমারও পিঠের ব্যাথায় কাতরাতে কাতরাতে মাঠ ছেড়েছেন ৮৮ মিনিটের মাথায়। সিলভা যে খেলতে পারবেন না সেটা তো নিশ্চিত হয়েই গেছে। জার্মানির মতো কঠিন প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ইনজুরির কারণে যদি নেইমারও না খেলতে পারেন তাহলে সেটা ভয়ানক দুশ্চিন্তাতেই ফেলে দেবে ব্রাজিল শিবিরকে।

শেয়ার করুন