খোলা স্থানে পোড়া তেলে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে শহরে বিক্রি হচ্ছে ইফতার সামগ্রী

0
184
Print Friendly, PDF & Email

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি \\ রমজান মাস উপলক্ষ্যে খোলা স্থানে পোড়া তেলে এক কথায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ইফতারী বিক্রি হচ্ছে৷ এমনটিই দেখা মিলেছে কুষ্টিয়া শহরের বিভিন্ন স্পটে৷ বছরের অন্যান্য সময় ভেজাল বিরোধী অভিযানের আতংক ব্যবসায়ীদের মাঝে থাকলে ও পবিত্র রমজান মাসে তাদের মাঝে সেই রকম কোন আতংক থাকে না৷ যার ফলে ব্যবসায়ীরা এ মাসে বেপরোয়া হয়ে ওঠে এবং ভেজাল খাদ্য বিক্রি করতে থাকে৷
সরেজমিনে দেখা গেছে, কুষ্টিয়া শহরের এন এস রোডে বিভিন্ন বেকারী ও কনফেকশনারী, মজমপুর, কোর্ট স্টেশন, কলেজ মোড়, হাসপাতাল মোড়ের বিভিন্ন হোটেলে পোড়া তেল দিয়ে নোংরা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খোলা স্থানে বিভিন্ন ইফতারী বিক্রি হচ্ছে৷ ইফতার সামগ্রীর মধ্যে পিয়াজু, বেগুনি, বিভিন্ন প্রকার চপ কে আকর্ষনীয় করার জন্য এসব খাদ্যে রং ও বেকিং পাউডার (খায় সোডা)মেশানো হচ্ছে৷ যা স্বাস্থের জন্য মারাত্বক ক্ষতিকর৷ এছাড়া শহরের বিভিন্ন স্থানে গরে উঠা মিনি চাইনিজ ও ভ্রাম্যমান ভাবে খোলা স্থানে এসব অস্বাস্থ্যকর ইফতারী বিক্রি হচ্্েছ৷ চিকিত্‍সকরা বলছে সারা দিন রোজা থেকে এসব অস্বাস্থ্যকর খাদ্য খেয়ে বিভিন্ন পেটের সমস্যাই ভুগবে সাধারন মানুষ৷
এ বিষয়ে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার তাপস কুমার সরকার জানান, এ গরমে সারাদিন রোজা থাকার পর মানুষ অস্বাস্থ্যকর এসব ইফতারী খেলে ডায়রিয়া, আমাশয়সহ পেটের বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হতে পারে৷ এমনকি কিডনি বিকলসহ শরীরে অনেক বড় রোগ দেখা দিতে পারে৷
প্রসঙ্গত, বাসাবাড়িতে প্রয়োজনের তাগীদে অনেক কে বাইরে থেকে ইফতার সামগ্রী কিনতে হয়৷ এছাড়া দোকানদার ও সাধারন পথচারীরা ইফতারের সময় বাইরের খাবার কিনে খায়৷ এতে করে বিপাকে পড়ছে ক্রেতা সাধারন৷
উলেখ্য, রমজান উপলক্ষ্যে শহরে সঠিকভাবে ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালিত না হবার কারনে অসাধু ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ন বেড়েছে৷

শেয়ার করুন