মোবাইল ফোনে কথা বললেই গুনতে হতে পারে অতিরিক্ত ‘পয়সা’

0
134
Print Friendly, PDF & Email

মোবাইল ফোনে কথা বললেই আপনাকে অতিরিক্ত ‘পয়সা’ গুনতে হতে পারে। কারণ আগামী জুলাই থেকে মোবাইল ফোন ব্যবহারের ওপর বসানো হচ্ছে সারচার্জ। তবে শেয়ারবাজার থেকে ব্যক্তি বিনিয়োগকারী মুনাফায় আর কর দিতে হবে না। ২০১৪-১৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে শেয়ারবাজার থেকে মুনাফার ওপর (গেইন ট্যাক্স) কর আরোপ করা হয়েছিল।
গতকাল শনিবার জাতীয় সংসদে মোবাইল ফোন ব্যবহারের ওপর সারচার্জ আরোপের প্রস্তাব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, এ থেকে অতিরিক্ত যে অর্থ পাওয়া যাবে তা শিক্ষা ও স্বাস্থ্যখাতে ব্যয় করা হবে। তিনি বলেন,  মোবাইল ফোনের আমদানির ওপর শুল্ক বৃদ্ধির প্রস্তাব কিছুটা বেশি হয়ে গেছে।
তিনি অর্থমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, ‘মোবাইল ফোনের আমদানির ওপর শুল্ক কিছুটা হ্রাস করতে পারেন।’
মোবাইল ফোন ব্যবহারের ওপর সারচার্জ আরোপের প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাব অর্থমন্ত্রী মেনে নিয়ে সংসদে পাস করিয়ে নেন অর্থবিল-২০১৪। তবে এই সারচার্জ কত হবে এবং এর প্রক্রিয়া বা কিভাবে সেই বিষয়ে কিছু বলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তবে তিনি বলেন, মোবাইল ফোনের ওপর আরোপিত  ১০ শতাংশ আমদানি শুল্ক হ্রাস করে ৫ শতাংশ এবং অগ্রিম আয়কর প্রত্যাহার করে নেয়া হলো।
অর্থবিলে ব্যক্তি বিনিয়োগকারীদের শেয়ারবাজার থেকে প্রাপ্ত মুনাফা করমুক্ত হিসেবে ঘোষণা করা হয়।  একই সাথে করমুক্ত লভ্যাংশ আয়ের সীমা বৃদ্ধি ও ৩০ শতাংশ লভ্যাংশ প্রদানকারী কোম্পানিকে ১০ শতাংশ আয়কর রেয়াত দেয়ার কথা বলা হয়।
এ বিষয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন,  প্রধানমন্ত্রী পুঁজিবাজারের বিকাশ ও বিনিয়োগকে উৎসাহিত করার জন্য ব্যক্তি বিনিয়োগকারীদের শেয়ারবাজার থেকে প্রাপ্ত মুনাফা সম্পূর্ণ করমুক্ত সুবিধা পুনর্বহাল করা, করমুক্ত লভ্যাংশ আয়ের সীমা বৃদ্ধি করা এবং ৩০ শতাংশ বা বেশি লভ্যাংশ প্রদানকারী লিস্টেড কোম্পানিগুলোর প্রদেয় করের ১০ শতাংশ আয়কর রেয়াত করার প্রস্তাব বিবেচনার জন্য মহান সংসদকে অনুরোধ করছি।’
অর্থমন্ত্রী বলেন, অর্থবিল, ২০১৪ এ ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগ ছাড়া অন্য বিভাগগুলো সিটি করপোরেশনের বাইরে স্থাপিত শিল্পকে সাত বছরের পরিবর্তে ১০ বছরের ক্রমহ্রাসমান হারে কর অবকাশ সুবিধা প্রদানের প্রস্তাব করা হয়েছে। এ প্রস্তাবের  সাথে সামঞ্জস্য রেখে সিনেমা হল বা সিনেপ্লেক্স এবং ‘রাইস ব্র্যান ওয়েল’ শিল্পের েেত্র আয়কর সুবিধা প্রাপ্তির জন্য বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করার শর্ত ৩০ জুন, ২০১৫-এর পরিবর্তে ৩০ জুন, ২০১৯ করা হয়। তা ছাড়া ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগ ছাড়া অন্যান্য বিভাগে স্থাপিত সিনেপ্লেক্সের েেত্র এবং ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগ ছাড়া অন্যান্য বিভাগের সিটি করপোরেশনের বাইরে স্থাপিত ‘রাইস ব্র্যান ওয়েল’ েেত্র সাত বছরের পরিবর্তে ১০ বছরের জন্য ক্রমহ্রাসমান হারে কর অবকাশ সুবিধা করা হবে।
অর্থবিলে বলা হয়, গৃহনির্মাণে বিনিয়োগের পরিমাণ বিবেচনায় ফ্যাট বা দালান বিক্রি থেকে প্রাপ্ত মুনাফার ওপর প্রতি বর্গফুট ৯০ টাকা হারে উৎসে কর কর্তনের পরিবর্তে হ্রাসকৃত হারে প্রতি বর্গমিটারে ৬০০ টাকা (প্রতি বর্গফুট ৫৫.৭৬ টাকা) কর্তন করা হবে।
অর্থবিল, ২০১৪ এ ব্যক্তি ও অংশীদারি ব্যবসায়ের বিক্রি বা মোট প্রাপ্তি পাঁচ কোটি টাকার ঊর্ধ্বে হলে পেশাদার হিসাববিজ্ঞানীর সনদ প্রদান বাধ্যতামূলক করার প্রস্তাব  করা হয়েছিল। এফবিসিসিআইর সুপারিশ অনুযায়ী আলোচ্য প্রস্তাব প্রত্যাহার করা হয়েছে।
অর্থবিল, ২০১৪ এ ৮৩এএএ ধারায় করদাতার হিসাব পরীা এবং ১০৭এফ ধারায় আন্তর্জাতিক লেনদেনের সার্টিফিকেশন উভয় েেত্র চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্টদের পাশাপাশি কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্টেন্টদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়। চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্টদের তীব্র আপত্তি এবং এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক রীতি অনুসরণের ল্েয অর্থবিল, ২০১৪-এর কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্টেন্টদের অন্তর্ভুক্তি সংক্রান্ত বিধান প্রত্যাহার করা হয়।
সম্পূরক শুল্ক ও আমদানি শুল্কসংক্রান্ত পরিবর্তন
টুথপেস্ট, সাবান, ডিটারজেন্ট, লিফ স্প্রিং, রেজর, রেজর পার্টস এবং স্টেইনলেস স্টিল ব্লেডের সম্পূরক শুল্ক ১৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে আগের মতো ২০ শতাংশ করা হয়।  ফোট গ্লাস ও প্রসাধনী সামগ্রীর সম্পূরক শুল্ক ৩০ শতাংশ থেকে বৃদ্ধি করে আগের মতো ৪৫ শতাংশ করা হয়। একই বিবেচনায় ‘ডেক্সটোজ মনোহাইড্রেট’-এর সম্পূরক শুল্ক ২০ শতাংশ থেকে ৩০ শতাংশ করা হয়েছে।
সিগারেটের শুল্ক হারের পরিবর্তন
বর্তমানে বাণিজ্যিকভাবে সিগারেট পেপার আমদানির েেত্র ১০০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক প্রযোজ্য রয়েছে। অন্য দিকে উৎপাদক আমদানি করলে ৬০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক দিতে হয়। এই দুই প্রকার আমদানির েেত্র শুল্ক বেষম্য কমিয়ে আনার উদ্দেশ্যে বাণিজ্যিকভাবে আমদানিকৃত সিগারেট পেপারের সম্পূরক শুল্ক ১০০ শতাংশ থেকে হ্রাস করে ৬০ শতাংশ করা হয়েছে।  উন্নত ব্রান্ডের সিগারেটের অবৈধ আমদানি হ্রাস ও শুল্ক ফাঁকি প্রবণতা নিরুৎসাহিত করার জন্য উন্নতমানের সিগারেট তৈরির জন্য আমদানিকৃত অপ্রক্রিয়াজাত তামাক আমদানির ওপর  ১০০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক কমিয়ে ৬০ শতাংশে নির্ধারণ করা হয়েছে।
সেভারের দাম বাড়বে
সেভারের ওপর কোনো সম্পূরক শুল্ক বিদ্যমান না থাকায় এর ওপর ২০ শতাংশ হারে সম্পূরক শুল্ক আরোপ করা হয়।
হাইব্রিড গাড়ির শুল্কস্তর পরিবর্তন
প্রস্তাবিত বাজেটে ২৫০০ সিসি পর্যন্ত নতুন হাইব্রিড গাড়ি আমদানির ওপর ৬০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আরোপ করা হয়। নতুন হাইব্রিড গাড়ির ওপর আরোপিত সম্পূরক শুল্ক হার পুনর্বিন্যাস করার ল্েয ১৮০০ সিসি পর্যন্ত নতুন হাইব্রিড গাড়ির ওপর সম্পূরক শুল্ক ৪৫ শতাংশ এবং ১৮০১ সিসি থেকে ২৫০০ সিসি পর্যন্ত নতুন হাইব্রিড গাড়ির ওপর আরোপিত ৬০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক নির্ধারণ করা হয়েছে।
ওষুধ শিল্পকে সহায়তা
ওষুধ শিল্পের পশ্চাৎ সংযোগ শিল্প হিসেবে কয়েকটি প্রতিষ্ঠান ব্লিস্টার ফয়েল উৎপাদন শুরু করেছে। Aluminium foil not backed পণ্য ব্লিস্টার ফয়েল উৎপাদনের একটি গুরুত্বপূর্ণ মৌলিক উপকরণ। এফবিসিসিআইসহ কয়েকটি অ্যাসোসিয়েশন শুল্ক হ্রাসের আবেদন করেছে। মূসক নিবন্ধিত শিল্পপ্রতিষ্ঠান কর্তৃক ‘অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল নট ব্যাকড’-এর আমদানির েেত্র আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ থেকে হ্রাস করে ৫ শতাংশ এবং বিদ্যমান ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি প্রত্যাহার করা হয়েছে।
রড শিল্পকে সহায়তা
রড উৎপাদনের ব্যয় কিছুটা হ্রাস করার ল্েয বিলেট উৎপাদনে ‘গ্রাফাইট ইলেকট্রোড’ একটি গুরুত্বপূর্ণ উপকরণ হওয়ায় এর ওপর বিদ্যমান ২৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক হ্রাস করে ১০ শতাংশ ধার্য  এবং ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি প্রত্যাহার করা হয়েছে অর্থবিলে।
উন্নত মানসম্পন্ন ট্রান্সফরমার তৈরিতে দেশীয় শিল্পপ্রতিষ্ঠানের সমতা বৃদ্ধিতে সহায়তা প্রদানের ল্েয পণ্যটির উপাদান ‘সুপার অ্যানামেল কপার ওয়্যার’-এর আমদানিতে আরোপিত ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি প্রত্যাহার করা হয়েছে।
পিন ও স্ট্যাব পণ্য দু’টি জুটমিলে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়।  এ কারণে এর উপকরণ কার্বন স্টিলওয়্যারের আমদানি শুল্ক ২৫ শতাংশ থেকে হ্রাস করে ৫ শতাংশ করা এবং বিদ্যমান ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। একই সাথে সম্পূর্ণায়িত ‘জুট পিন ও জুট স্টিভেস’-এর আমদানি শুল্ক ২ শতাংশ হতে বৃদ্ধি করে ১০ শতাংশ এবং ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি ও ১৫ শতাংশ মূসক আরোপ করা হয়েছে।
বাংলাদেশ কালি প্রস্তুতকারক মালিক সমিতির আবেদন অনুযায়ী মূসক নিবন্ধিত কালি উৎপাদনকারীদের ‘পেনোলিক রেজিন’-এর আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ থেকে হ্রাস করে ৫ শতাংশ করা হয়েছে।
প্রস্তাবিত বাজেটে বৈদ্যুতিক ফ্যান মোটরের আমদানি শুল্ক ২ শতাংশ থেকে কৃদ্ধি করে ২৫ শতাংশ এবং ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি আরোপ করা হয়। দেশীয় ফ্যান প্রস্তুতকারকদের আপত্তি বিবেচনায় নিয়ে পণ্যটির আমদানি শুল্ক ২৫ শতাংশ হতে হ্রাস করে ১০ শতাংশে নির্ধারণ করা এবং ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি প্রত্যাহার করা হয়েছে।
প্রস্তাবিত বাজেটে ‘হেডিং ৭২.১৩ (৭২১৩.৯১.১০ ছাড়া) ভুক্ত এমএস রডের ওপর ২৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক, ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি এবং ১৫ শতাংশ মূসক আরোপ করা হয়। ‘হেডিং ৭২.১৪-এর পণ্যের ওপর আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ রয়ে যায়। এ অসামঞ্জস্যতা দূরীকরণের ল্েয হেডিং ৭২.১৪ (৭২১৪.৯১.১০ ছাড়া) ভুক্ত এমএস রডের ওপর ২৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক, ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি আরোপ হয়েছে।
এলপিজি সিলিন্ডার
 এলপিজি সিলিন্ডারের বাজারমূল্য স্থির রাখার স্বার্থে এর আমদানি শুল্ক ২৫ শতাংশ থেকে হ্রাস করে ১০ শতাংশ করা হয়েছে।      অ্যালুমিনিয়াম কম্পোজিট প্যানেলের ওপর আরোপিত ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি প্রত্যাহর করা হয়েছে।
বিলেট
বিলেট উৎপাদনের উপকরণ ‘স্পঞ্জ আয়রন ও ডিরেক্ট রিডিউসড আয়রন (ডিআরআই)’-এর আমদানি শুল্ক ৫ শতাংশ থেকে হ্রাস করে শূন্য শতাংশ করা হয়। অপর দিকে ইনডাকশন ফার্নেস বিলেট উৎপাদনের উপকরণ ‘ফেরাস ওয়েস্ট অ্যান্ড স্ক্র্যাপ’ (হেডিং ৭২.০৪)-এর প্রতি টনের আমদানি শুল্ক ১৫০০ টাকা থেকে বৃদ্ধি করে দুই হাজার টাকা করা হয়। এ বৈষম্য দূর করার ল্েয ‘স্পঞ্জ আয়রন ও ডিআরআই’-এর ওপর এক হাজার টাকা প্রতি টন হারে এবং ‘ফেরাস ওয়েস্ট অ্যান্ড স্ক্র্যাপ’-এর আমদানি শুল্ক ১৫০০ টাকা প্রতি টন পুনর্নির্ধারণ করা হয়।
বস্ত্র
বস্ত্রশিল্পের তিনটি কাঁচামাল পেট শিপস, সিনথেটিক ফিলামেন্টটাও, আর্টিফিশিয়াল স্ট্যাপল ফাইবার-এর ওপর আরোপিত ৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক হ্রাস  করে শূন্য শতাংশ করা হয়েছে।
দেশীয় টায়ার
দেশীয় টায়ার উৎপাদনকারীর  জন্য ‘বাস/লড়ি টায়ার, অব রিম সাইজ আপটু ১৬ ইঞ্চি’-এর আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ থেকে বৃদ্ধি করে ২৫ শতাংশ করা হয়েছে এবং আরোপিত ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি প্রত্যাহার করা হয়েছে।
সিআর কয়েল আমদানিতে শুল্ক আরোপ
সিআর কয়েল (ইএচএস কোড ৭২০৯.১৮.৯০) এ কোনো রেগুলেটরি ডিউটি নেই। অথচ অন্য সিআর কয়েলের ওপর রেগুলেটরি ডিউটি আরোপিত আছে। এ অসামঞ্জস্যতা দূরীকরণের ল্েয সিআর কয়েল আমদানিতে ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি আরোপ করা হয়েছে।
বাংলাদেশ কাস্টমস ট্যারিফ হেডিং ২৯.৩৯-এর (এইচএস কোড ২৯৩৯.৯৯.১০), ৭২.০৮ (সংশ্লিষ্ট সব এইচএস কোড), ৭২.১৩ (এইচএস কোড ৭২১৩.৯১.১০), ৮৫.২৮ (এইচএস কোড ৮৫২৮.৫১.১০)-এর বর্ণনায় প্রয়োজনীয় সংশোধন করা হয়েছে।
মূল্য সংযোজন করসংক্রান্ত সংশোধন
জীবনরক্ষাকারী কিছু ওষুধ ব্যবসায় পর্যায়ে মূসক অব্যাহতি
কিডনি ডায়ালিসিস সলিউশন, ক্যান্সার নিরোধক ওষুধ, ভ্যাকসিন ফর হিউম্যান, ভ্যাকসিন ফর ভেটেরিনারি ইনসুলিন প্রভৃতি জীবনরাকারী ওষুধের ও ইনসুলিন পেন/কার্টিজ ইত্যাদি পণ্যের ওপর বর্তমানে আমদানি ও উৎপাদন পর্যায়ে এবং হোমিওপ্যাথিক, আয়ুর্বেদিক, ইউনানী ও ভেষজ ওষুধসামগ্রীর উৎপাদন পর্যায়ে মূসক অব্যাহতি বলবৎ আছে। আলোচ্য ওষুধগুলোর মূল্য সহনীয় রাখতে  প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ অনুযায়ী ব্যবসায়ী পর্যায়েও মূসক অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।
বিস্কুট ও কেকের ওপর মূসক অব্যাহতি
 ১০০ টাকা (প্রতি কেজি) মূল্যমান পর্যন্ত হাতে তৈরি বিস্কুট ও কেকের ওপর মূসক অব্যাহতি সুবিধা আগের মতো বহাল রাখা হয়েছে।
ট্রাভেল এজেন্সির মূসক হ্রাস
ট্রাভেল এজেন্সি শীর্ষক সেবার ওপর বিদ্যমান ১০ শতাংশ মূসক কর হ্রাস করে নিট ৭.৫ শতাংশ মূসক আরোপ করা হয়েছে।
অর্থমন্ত্রী অর্থবিল পাসের সময় বলেন, বাজেট ঘোষণাকালে কিছু পণ্যের ট্যারিফ মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছিল। তার মধ্যে এমএস প্রোডাক্টের কিছু পণ্য অন্তর্ভুক্ত ছিল। উন্নয়নের গতি ত্বরান্বিত করতে এবং এমএস পণ্যের মূল্য সহনীয় রাখতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় বর্ধিত ট্যারিফ মূল্যের প্রস্তাব প্রত্যাহার করে আগের ট্যারিফ মূল্য বহাল রাখা হচ্ছে। এর ফলে এসব পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল থাকবে।

শেয়ার করুন