এক রশিতে স্বামী-স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

0
109
Print Friendly, PDF & Email

নাটোরের সিংড়া উপজেলার আগপাড়া শেরকোল গ্রামে এক রশিতে ফাঁস দেওয়া অবস্থায় স্বামী ও স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘরের কাঠের তীরের সঙ্গে তাঁদের লাশ ঝুলছিল।

নিহত স্বামীর নাম আশরাফুল ইসলাম (৩০) ও স্ত্রীর নাম মদিনা বেগম (২৬)। গতকাল শনিবার রাতে স্বামী ও স্ত্রী ওই রশিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেন বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে। ঘরের মেঝেতে ‘আমাদের মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়’ লেখা একটি চিরকুট পাওয়া গেছে।

নিহত আশরাফ আলীর বাবা আছান আলী ঘটনাস্থলে সাংবাদিকদের বলেন, আশরাফুল তিন বছর ধরে ওমানে চাকরি করেন। ছুটিতে দুই মাস আগে বাড়িতে আসেন। আগামী ৬ জুলাই তাঁর আবারও ওমানে চলে যাওয়ার কথা ছিল। আজ (রোববার) তিনি বিমানের টিকিট কাটার জন্য ঢাকায় যেতে চেয়েছিলেন। আবারও বিদেশ যাওয়া নিয়ে কিছুদিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছিল। এর জের ধরেই তাঁরা আত্মহত্যা করেছেন বলে তিনি মনে করেন।

নিহতের পরিবার জানায়, আগপাড়া শেরকোল গ্রামের আশরাফুল ইসলাম গতকাল রাতে খাওয়ার পর স্ত্রীকে নিয়ে নিজ ঘরে ঘুমাতে যান। তাঁদের একমাত্র ছেলে মতিউর রহমান (৮) দাদা-দাদির ঘরে ঘুমায়। মতিউর আজ রোববার সকালে ঘুম থেকে জেগে বাবা-মায়ের শোবার ঘরের খোলা জানালা দিয়ে তাঁদের ঝুলন্ত লাশ দেখে চিত্কার দেয়। তার চিত্কারে আশরাফের বাবা আছান আলীসহ প্রতিবেশীরা ছুটে যান। তাঁরা দরজা ভেঙে রশি থেকে তাঁদের লাশ উদ্ধার করেন।

খবর পেয়ে সিংড়া থানার পুলিশ লাশের সুরতহাল করে এবং ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠায়। সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম বলেন, মৃতদেহ উদ্ধারের সময় ঘরের মেঝেতে ‘আমাদের মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়’ লেখা চিরকুট পাওয়া গেছে। আমরা আত্মহত্যার কারণ সম্পর্কে এখনো নিশ্চিত হতে পারিনি। নিহত ব্যক্তিদের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় কোনো অভিযোগ দেওয়া হয়নি। পরিবারের অন্য সদস্যদের আমরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করছি।’

শেয়ার করুন