চলছে টেলিভিষনে বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা দেখার মহা উত্সব নওগাঁর সাপাহারে গ্রাম অঞ্চলে সৌর বিদু্যতের আলোয় আলোকিত

0
206
Print Friendly, PDF & Email

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর সাপাহার উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের দরিদ্র, মধ্যবিত্ত ও বিত্তশালী পরিবার এখন সৌর বিদু্যতের আলোয় আলোকিত, চলছে টেলিভিষনে বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা দেখার মহা উত্‍সব৷ ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে উঠছে সৌর বিদু্যত্‍ ব্যবস্থা৷ উপজেলার প্রত্যান্ত গ্রাম অঞ্চলে এক সময় অন্ধকারে রাত কাঠালেও এখন তারা আলোর মুখ দেখতে পেরে বেশ খুশি৷ উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের রফিকুল ইসলাম তাঁর বাড়িতে সৌর বিদু্যত্‍ ব্যবহার করেন৷ তিনি জানান, আমরা সৌর বিদু্যত্‍ গ্রাহকরা লোডশেডিং মুক্ত৷ পলস্ন্লী বিদু্যত্‍ গ্রাহকরা দিনের পর দিন, বিদু্যতের লোডশেডিংয়ে চরম দূর্ভোগে থাকেন৷ আমাদের সৌর বিদু্যত্‍ কোন লোডশেডিং নেই৷ টাকা করচ করে বিদু্যত্‍ নিয়ে যদি ঘন্টার পর ঘন্টা বিদু্যত্‍ বিহীন থাকতে হয় তবে সেই বিদু্যতের থেকে সৌর বিদু্যত্‍ অনেক ভালো৷ কত সুন্দর ভাবে সূর্যের আলোতে চার্জ করা বিদু্যতে রাত পার করছি৷ কারো কাছে ধরনা অথবা কোন পেরেশানিও নেই তাই আমরা খুশি৷ তিনি আরো বলেন, আমরা গ্রাম অঞ্চলের মানুষ৷ আমাদের দাম নির্বাচনের সময়, নির্বাচন শেষে আমাদের অবস্থান যেখানে ছিল সেখানেই থাকে৷ সুতরাং আমাদের গ্রামে পলস্ন্লী বিদু্যতের ব্যবস্থা হতে হতে আমরা মরেই যাব৷ তাই পলস্ন্লী বিদু্যতের আশা ছেড়ে দিয়ে সৌর বিদু্যতের ব্যবস্থা করে কোন রকম চলছি৷ যেখানে আগে লন্ঠন আর কুপিবাতি অথবা হারিক্যান দিয়ে অন্ধকার দূর হতো, ছেলে-মেয়েরা আলোর অভাবে পড়ালেখা করতে পারতো না সেখানে অন্তত আলোর ব্যবস্থা করতে পেরেছি৷ এ দিকে বিদু্যত্‍বিহীন প্রত্যান্ত অঞ্চলের হাট-বাজারগুলোতে সৌর বিদু্যত্‍ ব্যবস্থার কল্যানে এখন আলোকিত৷ বর্তমানে চলছে সৌরবিদু্যতের চার্জে টেলিভিষনে বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা দেখা৷ গ্রাম অঞ্চলের মানুষ হত দরিদ্র তাই চরম অর্থ সংকটের কারনে সৌর বিদু্যত্‍ নিতে পারছেন না৷ তাই বেশিরভাগ এলাকার মানুষ এখনো সেই আদিম যুগের মতো সন্ধার আগেই রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন৷ সৌর বিদু্যত্‍ সুবিধাপ্রাপ্ত বেশ কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, বিভিন্ন ক্ষমতাসম্পূর্ন সৌর বিদু্যত্‍ কিস্তিতে সরবরাহ করছে বিভিন্ন বে-সরকারী এনজিও৷ চড়া সুদ নিলেও ভালো৷ অন্তত পাঁচ বছর তো অনায়াশে ব্যবহার করা যায়, তার পর ব্যাটারি পরিবর্তন করলেই আবার চলে আরো পাঁচ বছর বলে জানালেন সৌরবিদু্যত্‍ ব্যবহারকারীরা৷#

শেয়ার করুন