খুন-গুম ছাড়া আ. লীগ ক্ষমতায় টিকতে পারবে না: ফখরুল

0
98
Print Friendly, PDF & Email

বিএনপি ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগ জনগণ থেকে বিছিন্ন হয়ে বন্দুকের জোরে দখলদার সরকারে পরিণত হয়েছে। প্রতিনিয়ত খুন-গুমের পথ বেচে নিয়েছে দলটি। এখন দিবালোকের মতো পরিস্কার খুন-গুম ছাড়া আওয়ামী লীগ এক মুহূর্তের জন্যও ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারবে না।

বুধবার বিকালে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নির্বাচনী এলাকা ফেনীর মুন্সীহাট এলাকায় রমজান উপলক্ষে গরিব-দুস্থদের মধ্যে ইফতার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ অতীতে একদলীয় বাকশাল কায়েম করেছিল; আর এখন ভিন্ন লেবাসে সুপরিকল্পিতভাবে বিভিন্ন কৌশলে বিরোধী দলকে দমন ও ধ্বংস করতে চায়। তারা গণতন্ত্র কি জানে না বলেই জোর করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চাচ্ছে।

ফখরুল বলেন, সমগ্র বাংলাদেশকে আজ সন্ত্রাসের জনপদে পরিণত করেছে। আর তা বাস্তবায়নে আওয়ামী লীগের পেটোয়া বাহিনী বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান একরামুল হকের হত্যাকাণ্ডকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ বিএনপির বিরুদ্ধে হত্যার রাজনীতি শুরু করেছে।

আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ করে বলেন মির্জা আলমগীর বলেন, খালেদা জিয়া স্পষ্ট করে বলে দিয়েছেন, এখনো সময় আছে সংলাপের মাধ্যমে সংকট সমাধানের উদ্যোগ নিন। অন্যথায় রাজপথে দুর্বার আন্দোলনের মাধ্যমে ক্ষমতা থেকে সরানোর বিকল্প কিছু থাকবে না। তাই হয় সংলাপে বসুন না হয় বিদায় নেবার প্রস্ততি নিন।

একরামুল হক হত্যা মামলায় বিএনপি নেতা মিনার চৌধুরীকে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা জানিয়ে মুক্তি দাবি করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সত্যিকার ঘটনা আড়াল করতে একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে বিএনপির নেতৃবৃন্দকে হয়রানি করছে। তাদের উদ্দেশ্য একটায় বিএনপিকে নেতৃত্ব শূন্য করা।

ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ আমাদের মিথ্যা মামলা, খুন, গুম করে আন্দোলন থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে ভয় দেখায়। এমনকি দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করছে তাদের রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে রাখার ষড়যন্ত্র করছে। আর তারই ধারাবাহিকতায় জেলা ও থানা বিএনপির নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে একের পর এক মামলা দেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, দেশের গণতন্ত্র ও ৯৫ ভাগ মানুষের ধর্ম ইসলামকে রক্ষা করতে হলে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আগামী দিনের আন্দোলনের জন্য ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সুপরিকল্পিতভাবে গত ৫ জানুয়ারি এককভাবে নির্বাচন করে ক্ষমতা দখল করেছে। আলেম-ওলামাদের হত্যা করেছে। বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলী ও চৌধুরী আলমসহ ৬৫ জনকে গুম ও ৩১০ জনকে হত্যা করেছে। তিনি বর্তমান সরকারের সংসদকে সঙদের সংসদ বলে আখ্যায়িত করেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব বরকত উল্লাহ বুলু, মো. শাহজাহান, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ভিপি জয়নাল আবেদীন, রেহেনা আক্তার রানু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল বারি বাবু প্রমুখ।

শেয়ার করুন