বুধবার ঢাকা আসছেন সুষমা স্বরাজ

0
66
Print Friendly, PDF & Email

নরেন্দ্র মোদী সরকার গঠনের পর বুধবার বাংলাদেশ সফরে আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।

দেশটির বর্তমান সরকারের শীর্ষ স্থানীয় নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের নেতার এ সফরকে বেশ গুরুত্ব দিয়েই দেখছে বাংলাদেশ।

এ সফরে উত্তর-পূর্ব ভারতে ব্যান্ডউইথ রফতানি চুক্তিসহ তিস্তার পানিবণ্টন চুক্তি, স্থলসীমান্ত চুক্তি এবং মৈত্রী ট্রেন সংখ্যা বৃদ্ধির মাধ্যমে রেল যোগাযোগ বৃদ্ধি নিয়ে আলোচনা হবে।

বিজেপির নেতৃত্বাধীন নতুন সরকার দায়িত্ব গ্রহণের পর ভারতের শীর্ষ পর্যায়ের কোনো নেতার এটাই প্রথম বাংলাদেশে সফর। ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সফরটিকে বেশ গুরুত্ব দিচ্ছে বাংলাদেশ।

এ সফরের মধ্য দিয়ে মোদী সরকারের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদার করতে চায় বাংলাদেশ। এছাড়া দ্বিপাক্ষিক সব বিষয়গুলো নিয়েও এ সফরে আলোচনা করবে দুই পক্ষই। ভারতের নতুন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রথম সফরে বাংলাদেশে আসবেন বলে মনে করা হলেও তিনি প্রথম গেছেন ভুটান। মোদী সরকারের পক্ষ থেকে তাই সুষমা স্বরাজকে ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বলেন, ভারত আমাদের অন্যতম নিকট প্রতিবেশী। দুই দেশের স্বার্থেই একে অন্যের সঙ্গে সুসম্পর্কের কোনো বিকল্প নেই। আর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যে অগ্রাধিকার প্রতিশ্রুতি নিয়ে ক্ষমতায় এসেছেন, তা পূরণ করতে আগামী দিনগুলোতে বেশ ব্যস্ত সময় পার করতে হবে মোদী সরকারকে।

তিনি বলেন, আর সম্পর্ক জোরদারের মাধ্যমে অগ্রগতির সঙ্গে নিজেকে যুক্ত করতে চাইছে ভারত। ফলে, সুষমা স্বরাজের এবারের সফরটি বাংলাদেশের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ।

সূত্রে জানা গেছে, নরেন্দ্র মোদী জনগণের কাছে দেওয়া প্রতিশ্রুতিগুলো বাস্তবায়নে ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছেন। আগামী ১৮ মাসের মধ্যে নীতি-নির্ধারণী পর্যায়ের সব কাজ সম্পন্ন করে তা বাস্তবায়নে নেমে পড়বে মোদী সরকার। ফলে, এ ১৮ মাসের মধ্যে বাংলাদেশও ভারতের সঙ্গে তাল মিলিয়ে তার প্রবৃদ্ধি এগিয়ে নিয়ে যেতে দেশটির সঙ্গে যত বেশি সম্ভব যুক্ত হতে চাইছে।

সূত্র জানায়, এবারের সুষমা স্বরাজের সফরে ভারতের সাতটি অঙ্গ রাজ্যে ইন্টারনেট রফতানি বিষয়ক একটি চুক্তির প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। এছাড়া দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় তিস্তা নদীর পানি বণ্টন, স্থলসীমান্ত চুক্তি, ভারতের ঋণ, বিদ্যুৎখাতে সহযোগিতা, সীমান্ত হত্যাকাণ্ড বন্ধ, চার দেশিয় অর্থনৈতিক করিডোর বিসিআইএম, ট্রানজিট-ট্রান্সশিপমেন্টসহ অন্যান্য বিষয়ে আলোচনা করবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এবং ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।

সফর কালে ঢাকায় তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দেওয়া দিল্লি সফরের আমন্ত্রণপত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে তুলে দেবেন।

জানা গেছে, সুষমা স্বরাজ তিন দিনের সফরে ঢাকায় আসছেন ২৫ জুন। সফরকালে তিনি ঢাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। এছাড়া পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে আনুষ্ঠানিক দ্বিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। সুষমা স্বরাজ প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা গহওর রিজভী, অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান ছাড়াও সরকারের উচ্চ পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে একাধিক বৈঠক আয়োজনের প্রস্তুতি চলছে।

শেখ হাসিনা গত ২৬ মে ভারতের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে চিঠি লেখেন। চিঠিতে তিনি দুই দেশের উন্নতিতে একসঙ্গে কাজ করার ওপর তাগিদ দেন।

তিনি নরেন্দ্র মোদীকে সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফরেরও আমন্ত্রণ জানান। এছাড়া ভারতের নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পর সুষমা স্বরাজকে অভিনন্দন ও বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান এ এইচ মাহমুদ আলী।

শেয়ার করুন