বিশ্বকাপের হাওয়া বলিউডে

0
24
Print Friendly, PDF & Email

ফিফা বিশ্বকাপ ফুটবল বলে কথা! সারাবিশ্বের মতো বলিউড তারকারাও ফুটবল জ্বরে আক্রান্ত! বিশ্বকাপের ম্যাচগুলো যেন মিস না হয় সে অনুযায়ী কাজের সময়সূচি সাজিয়ে নিয়েছেন অনেকেই। বলিউডের শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চন থেকে শুরু করে বাদশা শাহরুখ খান পর্যন্ত টুইটারে বিভিন্ন বার্তায় নিজেদের ফুটবল প্রেমের প্রকাশ ঘটিয়েছেন। চলুন শোনা যাক ফুটবলপ্রেমী তারকাদের কথা।

‘এটা বিশ্বকাপ, ফিফা, ফুটবল, ব্রাজিল, গান এবং নাচ… এটা বিশ্বের সব খেলার মধ্যে সবচেয়ে আবেগপূর্ণ এবং আনন্দঘন মুহূর্ত… এটা অসাধারণ!’ এসব কথা শুনলে অনেকের মনে হতে পাওে পাগলের প্রলাপ! ডবশ্বকাপের প্রতি নিজের ভালোবাসা এভাবেই প্রকাশ করেছেন অমিতাভ বচ্চন। আগাগোড়া ফুটবল পাগল মানুষ তিনি। ৭১ বছর বয়সী এই বর্ষীয়ান অভিনেতা এখনও রাত জেগে ফুটবলের প্রতিটি ম্যাচ উপভোগ করেন। আদতে তিনি ব্রাজিলের সমর্থক। বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে ক্রোয়েশিয়াকে হারানোর পর খুশিতে টুইটারে তিনি বলে ফেলেন, ‘আমার মনে এখনও সাম্বা নৃত্য চলছে।’ তবে অন্য দলের দৃষ্টিনন্দন খেলার তারিফ করতেও ভোলেন না বিগ বি। প্রতিটি খেলাই যে তিনি দেখেন, টুইটারে তার ধারাবাহিক বার্তা দেখে বোঝা যায়। গতবারের বিশ্বকাপে নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে শিরোপা জেতা স্পেন এবার একই দলের কাছে ৫-১ গোলের লজ্জাজনক পরাজয় বরণ করেছে। এই ফলের পর অমিতাভ বলেছেন, ‘স্পেনের বিপক্ষে গত বিশ্বকাপ হারানোর সত্যিকারের বদলা নিল নেদারল্যান্ডস। এটা ছিল অবিশ্বাস্য এক ম্যাচ!’ ওই ম্যাচে ডাচ ফুটবলারদের গোল নিয়েও মন্তব্য করেন তিনি, ‘হায় ঈশ্বর! ফন পার্সির গোল কি অবিশ্বাস্যই না ছিল! গোলকিপারকে অসহায় বানিয়ে শুন্যে লাফিয়ে তিনি হেড করে ডে গোল দিলেন, তা ভোলার নয়।‘

শাহেনশাহ ব্রাজিলের সমর্থক, বাদশা কি অন্য দলকে সমর্থন জানাতে পারেন! শাহরুখ খানেরও প্রিয় দল ব্রাজির। বিশ্বকাপ শুরু হতেই টুইটারে ফুটবলসহ নিজের একটা ছবি আপলোড করেন ৪৮ বছর বয়সী এই সুপারস্টার। ক্যারিয়ারে বেশ কিছু ছবিতে তাকে ফুটবল খেলতে দেখা গেছে। বিশ্বকাপ শুরুর দিন থেকেই শাহরুখ জানিয়ে রেখেছেন, ‘টিভি থেকে এক মাস আমার চোখ সরবে না!’

বলিউডের খান সাম্রাজ্যের আরেক সদস্য সালমান খান কোন দলকে সমর্থন করেন তা জানাননি। তবে তিনিও ফুটবলের ভক্ত। সময় পেলেই ভাই আরবাজ খানের ছেলেমেয়েকে নিয়ে মেতে ওঠেন ফুটবল খেলতে। আরেক খান আমিরের পুরো পরিবারই ফুটবলপ্রিয়। তার মেয়ে ইরা ২০ জুন তারকাদেও অংশগ্রহণে একটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ আয়োজন করেছেন। তবে মেয়ের এই পরিকল্পনা আমিরের কাছে পুরোপুরি সারপ্রাইজ। বিশ্বকাপ ফুটবল দেখায় এতোটাই ডুবে গিয়েছিলেন তিনি! পড়াশোনা অসাধারণ ইরা এরই মধ্যে বলিউডের প্রথম সারির কয়েকজন তারকাকে রাজি করিয়ে ফেলেছেন। এ তালিকায় থাকছেন শচীন টেন্ডুলকার, হৃতিক রোশন, অভিষেক বচ্চন ও টাইগার শ্রফ। এই ম্যাচ থেকে প্রাপ্ত অর্থ প্রাণী সংরক্ষণের তহবিলে দিয়ে দেবেন আমিরকন্যা। মাঠে না থাকলেও দর্শকসারিতে বসে খেলাটি উপভোগ করবেন আমিরের ভাগ্নে ইমরান খান। তিনি বলেন, ‘গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচগুলো একসঙ্গে দেখার জন্য বন্ধুরা আমাকে জাগিয়ে রাখে। তবে ফুটবল সম্পর্কে আমার কোনো ধারণা নেই। তবে কোন দলের কোন খেলোয়াড় মূল শক্তি তা জানি।’

প্রীতি ফুটবল ম্যাচ পাওয়া গেছে বলিউডের কাপুর সাম্রাজ্য থেকেও। কাপুরদের চতুর্থ প্রজন্মের তারকা আরমান জৈনের অভিষেক হয়েছে ‘লেকার হাম দিওয়ানা দিল’ ছবির মাধ্যমে। এই ম্যাচ তার ছবির প্রচারেরই অংশ। কাপুরদের সবার মধ্যে ফুটবলের প্রতি অগাধ ভালোবাসা। সেদিন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচে দুই দলের অধিনায়কত্ব করেন রণবীর কাপুর ও আরমান। রণবীরের দলে ছিলেন তার অভিনীত ‘রকস্টার’ ছবির পরিচালক ইমতিয়াজ আলি। তার ভাই আরিফ পরিচালনা করেছেন আরমানের প্রথম ছবি। রেফারি ছিলেন ‘লেকার হাম দিওয়ানা দিল’-এর নায়িকা দীক্ষা শেঠ। ম্যাচ শেষে আবেগাপ্লুত কণ্ঠে রণবীর বললেন, ‘আরমানের বয়স যখন দুই বছর, তখন ওকে প্রথম একটি ফুটবল ও খেলার জুতো কিনে দিয়েছিলাম। আশা করি, ফুটবলের সঙ্গে পরিচয় ঘটিয়ে দেওয়ার জন্য আমার প্রতি চিরদিন কৃতজ্ঞ থাকবে ও (হাসি)।’ তার কথা শেষ হতে আরমান জানান, এখনও ওই জুতো জোড়া পরেন তিনি। রণবীরের প্রিয় খেলোয়াড় আর্জেন্টাইন ফুটবরের বরপুত্র লিওনেল মেসি। স্কুলে অভিনয়ের আগে ফুটবল খেলেই পরিচিতি পেয়েছিলেন তিনি। ঋষি কাপুর ও নিতু সিং দম্পতির এই ছেলে বলেন, ‘ভালো ফুটবল খেলায় পত্রিকায় আমার নাম ছাপা হয়েছিল। মা এখনও ওই পেপার কাটিং রেখে দিয়েছেন। মেয়েরা আমার পিছু লেগে থাকতো। জয়সূচক গোল করলে সহপাঠীরা আমাকে কোলে তুলে নাচতো।’

জন অ্যাব্রাহাম অন্য বলিউড তারকাদের চেয়ে ফুটবলজ্ঞানে এগিয়ে। বড় দলগুলোর প্রত্যেক খেলোয়াড়ের সামর্থ্য, ফুটবলের খুঁটিনাটি সবই জানা আছে তার। ফুটবল নিয়ে ছবিতে অভিনয়ও করেছেন, এখন আরেকটি ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তার প্রাক্তন প্রেমিকা বিপাশা বসু ফুটবলপ্রেমী। বিশ্বকাপের একটা ম্যাচও মিস করতে চান না তিনি। বেশিরভাগ খেলাই তার দেখা চাই ঘরে বসে। বিপাশা আর্জেন্টিনা ও স্পেনকে সমর্থন করেন। আর্জেন্টিনার সমর্থক তালিকায় আছেন প্রাচী দেশাই। তবে মজার বিষয় হলো ২৫ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী ব্রাজিলকেই পছন্দ করেন! এনডিটিভি’র এক অনুষ্ঠানে এসে তিনি জানালেন, নিজের ফুটবল প্রীতির কথা। সব না হলেও কিছু কিছু ম্যাচ বন্ধুদের সঙ্গে ক্যাফে অথবা রেস্তোরাঁয় আড্ডা দেওয়ার সময় নতুবা ঘরে বসেই দেখবেন।

এবারের বিশ্বকাপের স্বাগতিক দেশ ব্রাজিল, ওই দেশের সুন্দরী ইজাবেলা লেইতে বলিউডে সুনাম কুড়াচ্ছেন ধীরে ধীরে। ফুটবলের দেশে জন্ম, তাই তার মধ্যে এই খেলার প্রতি ভালোলাগার কমতি নেই। ব্রাজিলের নেইমার, হাল্ক এবং পর্তুগালের ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর ভক্ত তিনি। ২৩ বছর বয়সী এই তারকা বলেছেন ‘এবারের বিশ্বকাপ আমার দেশের মাটিতে হচ্ছে, ফুটবলপ্রেমী হিসেবে এটা আমার জন্য খুবই আনন্দের। এ মাসের শেষের দিকে দেশে যাব এবং গ্যালারিতে বসে ব্রাজিলের খেলা দেখব।’

ব্রাজিলে গিয়ে বিশ্বকাপ উপভোগের ইচ্ছা ছিল সিদ্ধার্থ মালহোত্রারও। হালের এই হার্টথ্রবকে তার প্রথম ছবি ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার’-এ দেখা গেছে ফুটবল খেলতে। বাস্তবেও তিনি ফুটবলের অন্ধভক্ত। ব্রাজিল বিশ্বকাপ ফুটবলের খেলা দেখার সুযোগ দেওয়ার জন্য নিজের আগামী ছবি ‘এক ভিলেন’-এর নির্মাতাদের অনুরোধও জানিয়েছেন সিদ্ধার্থ।

বলিউডের আরেক উঠতি কারকা আয়ুস্মান খুরানা। ২৯ বছর বয়সী এই অভিনেতা টুইটারে লিখেছেন, ‘এখন সময় শুধু খেলা দেখার, বিশ্বকাপে মেতে থাকার চেয়ে বড় কাজ আর হতে পারে না।’

পরপর চারবার ‘ইন্ডিয়ান আইডল’ প্রতিযোগিতার উপস্থাপিকা ছিলেন মিনি মাথুর। ৩৮ বছর বয়সী এই জনপ্রিয় উপস্থাপিকা ফুটবলের ভক্ত। ব্রাজিলের শুরুর ম্যাচের দিন তিনি টুইটারে করেন ‘বাইরে বৃষ্টি হচ্ছে, আর চায়ের কাপ এবং ব্রাজিলের স্কার্ফ পরে আমি প্রস্তুত খেলা দেখতে।’ ব্রাজিলের সমর্থক তালিকায় আরও আছেন পরিচালক নিখিল আদভানি। অভিনেত্রী চিত্রাঙ্গদাও নিজেকে ফুটবলপ্রেমী বলে পরিচয় দিয়েছেন টুইটারে। বিশ্বকাপকে ঘিরে উত্তেজনা প্রকাশ করতে গিয়ে ৩৮ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী বলেন, ‘হে ফিফা, বাঁধভাঙা আনন্দে মাতো।’ –

শেয়ার করুন