নির্বাচনের জন্য সংলাপ চায় বিএনপি

0
32
Print Friendly, PDF & Email

ক্ষমতাসীনরা ‘অবৈধ’ হলেও সংলাপের মাধ্যমে আলোচনায় বসতে বিএনপি রাজি আছে বলে উল্লেখ করেছেন দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ন্যাশনাল পিপলস পার্টি আয়োজিত ‘সারা দেশে গুম, বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড: সংকটের আবর্তে বাংলাদেশ’ -শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন।

‘বিএনপিকে সংলাপে আসতে হলে সরকারকে আগে বৈধতা দিতে হবে’ সরকারের মন্ত্রী-এমপিদের এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে মির্জা ফখরুল বলেন, এই বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে তারা নিজেদের অবৈধ বলে স্বীকার করে নিয়েছে। কিন্তু দেশ ও গণতন্ত্রকে রক্ষা করতে হলে অবৈধ সরকারের সাথেই আলোচনা করতে হবে। আমরা অবৈধ সরকারের সাথেই আলোচনা বসতে রাজি আছি।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সংলাপ, আলোচনা ও সমঝোতার মধ্যে দিয়ে আমরা দ্রুত নির্বাচন চাই। সকল রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন ছাড়া দেশের গণতন্ত্রকে রক্ষা করা যাবে না। বর্তমানে দেশে কোন গণতন্ত্র নেই।

সরকারকে উদ্দেশ্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, কালবিলম্ব করবেন না। অপহরণ, গুম ও খুন বন্ধ করে সুস্থ মন নিয়ে আলোচনা টেবিলে আসুন। অসুস্থ মন নিয়ে আলোচনা সফল হবে না। কারণ আপনাদের মধ্যেই অনেক অসুস্থ মনের মানুষ রয়েছে, তাদের চিকিৎসা করা প্রয়োজন। দেশের গণতন্ত্র রক্ষার জন্য সংলাপ ও আলোচনা বসার জন্য সরকারের প্রতি জোর আহ্বান জানান তিনি।

ফখরুল বলেন, অপহরণ, গুম ও খুনের একমাত্র উদ্দেশ্য হচ্ছে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ বিএনপি, ১৯ দলীয় জোট ও জাতীয়তাবাদী শক্তিকে নির্মূল করা।
আওয়ামী লীগ তাদের রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিলের জন্য ক্ষমতায় থাকতে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জোরে জনগণের সমর্থন ছাড়াই সংবিধান পরিবর্তন করে তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা বাতিল করেছে বলে অভিযোগ করেন মির্জা ফখরুল।
মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপি ইচ্ছে করে রাজপথের আন্দোলনে করেনি, সরকার আমাদের রাজপথে আন্দোলন করতে বাধ্য করেছে। জনগণের ভোটাধিকার ও দেশের গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যেই বিএনপি আন্দোলন করছে।

পদ্মা সেতুর টেন্ডার প্রসঙ্গে মির্জা আলমগীর বলেন, ক্ষমতাসীন দল চীনের সাথে পদ্মা সেতুর চুক্তি করেছে। কারণ বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে চুক্তি করলে আওয়ামী লীগ নিজেদের পকেট ভারি করতে পারবে না।

আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান শেখ শওকত হোসেন নিলুর সভাপতিত্বে গোলটেবিল আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামিক পার্টির সভাপতি অ্যাড. আব্দুল মবিন, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, সংগঠনের মহাসচিব ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ প্রমুখ। –

শেয়ার করুন