মুচির ছেলে এমপি!

0
99
Print Friendly, PDF & Email

কোনো রকমে ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য বা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে পারলে বাড়ি-গাড়ি বানিয়ে আঙুল ফুলে কলাগাছ হওয়ার হাজারো উদাহরণ চোখে পড়ে। ‘অনিয়ম’ই এমনভাবে নিয়ম হয়ে গেছে যে, ধরেই নেওয়া হয় কেউ নির্বাচনে দাঁড়ালে কয়েক মাসের মধ্যেই সে রাতারাতি বাড়ি-গাড়ির মালিক বনে যাবে। তবে এমন ধারণার বিপরীতেও রয়েছে বিরল দৃষ্টান্ত।

ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের আম্বালা আসনে লোকসভার দুই দু’বারের সাংসদ রতনলাল কাটারিয়া। অথচ তার বাবা জ্যাতিরাম কাটারিয়া এখনো মুচির কাজ করে সংসার চালান!

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো জানায়, জ্যাতিরামের বাড়ি হরিয়ানার লাডবায়। মুচির কাজ করেই তিনি বর্তমান সাংসদ রতনালালসহ চার সন্তানের পড়াশোনা করিয়েছেন।

জ্যাতিরাম বলেন, আমি রতনলালের বাবা হিসেবে গর্ববোধ করি। শৈশব থেকেই শিক্ষা আর রাজনীতিকে জীবনের আদর্শ মেনে আসছি। জুতো বিক্রি করে আমার চার সন্তানকে লেখাপড়া করিয়েছি। আমার ছেলে এখন এমপি। এতে আমি অনেক খুশি। তবে নিজের শেকড়কে ভুলতে পারব না।

তিনি বলেন, রতন ঘরের সব অনুষ্ঠানে, সুখ-দুঃখ ভাগাভাগিতে অংশ নেয়। সে আমাকে প্রায়ই বলে তার সঙ্গে গিয়ে থাকতে। কিন্তু লাডবা ছেড়ে কোথাও থাকতে আমার মন টেকে না। এই শেকড়প্রেম আর সততাই আমার সম্বল। জ্যাতিরাম আরো বলেন, আমি আশা করি, আমার ছেলেও সততার সঙ্গে দেশের সেবা করবে।

এছাড়া নিম্নশ্রেণীর একটি পরিবার থেকে উঠে আসা ব্যক্তিকে বিপুল ভোটে সংসদ সদস্য নির্বাচিত করায় আম্বালাবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন জ্যাতিরাম।

শেয়ার করুন