বিরোধী দলকে ধ্বংসের চক্রান্ত

0
55
Print Friendly, PDF & Email

যেহেতু পুরোনো অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা করার কোনো নিয়ম নেই, তাই অনেকটা বাধ্য হয়েই নতুন অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা করতে হয়েছে। প্রতিবারের মতো এবারও বাজেট ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী। তবে কেউ কেউ বলছেন, এই বাজেট জনগণের স্বার্থের সঙ্গে উচ্চাভিলাষী। জনগণের ইচ্ছা অনুযায়ী বাজেট হয়নি, হয়েছে অর্থমন্ত্রীর ইচ্ছামতো; বিশেষ করে বিরোধী দল মনে করছে, এই বাজেট ঘোষণার মাধ্যমে বিরোধী দলকে ধ্বংস করতে চাইছে সরকার।
প্রচলিত আছে, সরকারের বিরোধিতা করাই বিরোধী দলের কাজ। সরকারের যেকোনো কর্মকাণ্ডকে বিরোধী দলের প্রতি ষড়যন্ত্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করাটাও বিরোধী দলের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে। বিরোধীদলীয় নেতা-কর্মীরা সরকারবিরোধী আন্দোলনে প্রতিবাদের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করেন গাড়ির টায়ার। ‘আগুন জ্বালো’ টাইপ স্লোগান দিয়ে গাড়ির টায়ার জ্বালিয়ে রাস্তা বন্ধ করা একটি ঐতিহ্যবাহী কর্মসূচি। কিন্তু বর্তমান বাজেটে টায়ারের দাম বাড়ানো হয়েছে। ফলে, ক্ষতিগ্রস্ত হবেন সরকারবিরোধী আন্দোলনকারীরা। এটাকে বিরোধী দল ধ্বংস করার চক্রান্ত বলেই মনে করছে তারা। এ ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞরা বলছেন বিকল্প আন্দোলনের অবতারণা করার কথা। সামনেই বিশ্বকাপ ফুটবল। ফুটবল খেলেই সরকারের নানা অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা যেতে পারে। ফুটবলে লাথি মারার মধ্য দিয়ে সরকারের নানা অপর্কম প্রতিহত করার প্রতীকী চিত্র ফুটে উঠবে এই অভিনব প্রতিবাদের মাধ্যমে। পাশাপাশি জনগণের অংশগ্রহণ বাড়বে। একই সঙ্গে উন্নয়ন হবে দেশীয় ফুটবলের। আশা করি, টায়ার পোড়ানো আন্দোলনকারীরা বিষয়টা নিয়ে গভীর চিন্তাভাবনা করবেন।

শেয়ার করুন