বেসিক ব্যাংক নিয়ে ডাকাতি হচ্ছে : ইব্রাহিম খালেদ

0
49
Print Friendly, PDF & Email

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ বলেছেন, বেসিক ব্যাংক নিয়ে যা হচ্ছে, তা ব্যাংকিং নামে চালানোর কোনো সুযোগ নেই। এটি ব্যাংক ডাকাতি।
২০১৪-১৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে আজ রোববার বেসরকারি গবেষণাপ্রতিষ্ঠান সমুন্নয়ের এক পর্যালোচনা অনুষ্ঠানে একথা বলেন তিনি।
রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ পর্যালোচনায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সমুন্নয়ের প্রকল্প সমন্বয়কারী দিলরুবা ইয়াসমীন চৌধুরী।
অনিয়মের জন্য বেসিক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে বরখাস্ত করা হলেও চেয়ারম্যানকে কেন ধরা হচ্ছে না- সে বিষয়ে প্রশ্ন রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক এই ডেপুটি গভর্নর।
বাজেট বক্তৃতায় বেসিক ব্যাংকের বিষয়ে কোনো কিছু না থাকায় অর্থমন্ত্রীর সমালোচনা করেন ইব্রাহিম খালেদ। অর্থমন্ত্রীর উদ্দেশে তিনি বলেন, বেসিক ব্যাংক থেকে যে চার হাজার কোটি টাকা লোপাট হলো, সেটা তো জনগণের টাকা। এই ঘাটতি কোথা থেকে পূরণ করা হবে? আপনি কেন কৈফিয়ত দেবেন না।
প্রস্তাবিত বাজেট প্রসঙ্গে ইব্রাহিম খালেদ আর বলেন, কালোটাকা নিয়ে বিভ্রান্তি দূর করতে হবে। বৈধ অপ্রদর্শিত আয়ের ক্ষেত্রে এই সুযোগ রাখা যেতে পারে। যেমন- জমি বিক্রির ক্ষেত্রে নিবন্ধনের সময় কম অর্থ দেখানো হয়। সে ক্ষেত্রে বাকি টাকা বৈধ করার সুযোগ দেয়া যেতে পারে। সে জন্য আয়কর আইনে সংশোধন করতে হবে। তবে ঘুষ বা অন্য কোনো অবৈধ আয়ের ক্ষেত্রে কালোটাকা সাদা করার সুযোগ বন্ধ করতে হবে।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক এ কে এনামুল হক এবং বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজের (বি আইআইএসএস) সিনিয়র গবেষক মাহফুজ কবীর প্রমুখ।

শেয়ার করুন