অভিসার থেকে অফিসে!

0
36
Print Friendly, PDF & Email

‘পান খাইয়া ঠোঁট লাল করিলাম, বন্ধুর ভাগ্য হইল না।’ বঙ্গ-ললনার এই অভিমানের সঙ্গে আমরা পরিচিত। দুনিয়াজুড়েই হয়তো প্রিয় সখার জন্য অধরে মাধুরী নিয়ে অপেক্ষায় দিন গুনেছেন নারীরা। কিন্তু ব্রিটিশ নারীরা নাকি আজকাল সম্পূর্ণ ভিন্ন কারণেই লাল লিপস্টিকে ঠোঁট রাঙাচ্ছেন! অন্তত সাম্প্রতিক এক জরিপে এমনটাই দেখা গেছে। যুক্তরাজ্যের নারীবিষয়ক সাময়িকী ফিমেলফার্স্ট ডটকমের বরাত দিয়ে ইন্দো এশিয়ান নিউজ এ খবর জানিয়েছে।

যুক্তরাজ্যের একটা প্রসাধন সেবাপ্রতিষ্ঠান পরিচালিত ওই জরিপের ফলে বলা হয়েছে—প্রায় ৪০ শতাংশ ব্রিটিশ নারী নিয়মিতই লাল রঙা লিপস্টিক মেখে কর্মক্ষেত্রে যান পুরুষ ‘বস’ বা ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য। একইভাবে প্রায় দু-তৃতীয়াংশ নারীই চোখে ভারী মেকআপ নেন পুরুষ কর্মকর্তাদের নজরে পড়ার জন্য। ফিমেলফার্স্ট ডটকম এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে।

সাময়িকীটি আরও জানিয়েছে, কর্মক্ষেত্রে যাওয়ার সময় নিজেকে এভাবে আকর্ষণীয় করে সাজানোর ক্ষেত্রে সম্ভবত দেশটির নারীদের ভাবনায় গেঁথে বসা একটা বিশেষ বিশ্বাসই দায়ী। আর সেটা হলো প্রায় ৪০ শতাংশ ব্রিটিশ নারীই মনে করেন, বসের সঙ্গে ‘ফ্লার্ট’ করা বা বসকে আকৃষ্ট করতে পারাটা চাকরিতে উন্নতির একটা অন্যতম চাবিকাঠি।

কেবল ঠোঁটে লাল লিপস্টিক আর চোখে ভারী মেকআপই নয় সাজ-পোশাকের বিষয়ে কর্মক্ষেত্রের কোনো রক্ষণশীল বিধিবিধান থাকলে সেটাও মানতে চান বলে জানিয়েছেন জরিপে অংশগ্রহণকারী নারীদের একটা বড় অংশই। প্রায় ৪০ শতাংশ নারীই জানিয়েছেন, কর্মক্ষেত্রেও লো-কাট ব্লাউজ এবং হাইহিল পড়তে চান তাঁরা।

এ জরিপ পরিচালনাকারী প্রসাধন সেবাপ্রতিষ্ঠানটির সৌন্দর্য সম্পাদক এমা লেসলি বলেন, ‘লাল ঠোঁটের অভিব্যক্তি কেবল অভিসারের দিন কিংবা নৈশ নিমন্ত্রণের জন্য তুলে রাখার দিন শেষ।’

শেয়ার করুন