গোপালগঞ্জে ধর্ষণের অভিযোগে কাউন্সিলর গ্রেপ্তার

0
561
Print Friendly, PDF & Email

গোপালগঞ্জে এক নারীকে ধর্ষণ ও ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পৌরসভার কাউন্সিলরসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন টুঙ্গিপাড়া পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর লিটন শেখ (৩০), আলীম বিশ্বাস (২৫) ও হোটেলের কর্মচারী মো. জালালউদ্দিন (২২)।
ওই নারীর বাড়ি গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায়। তিনি স্থানীয় একটি কলেজের শিক্ষার্থী। কাউন্সিলর লিটন শেখ ও আলীম বিশ্বাসের বাড়ি টুঙ্গিপাড়া পৌরসভার গিমাডাঙ্গা মহল্লায়।
গতকাল শনিবার বেলা আড়াইটার দিকে টুঙ্গিপাড়া উপজেলার পর্যটন মোটেল মধুমতীতে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ করেছেন ওই নারী। এ ব্যাপারে তিনি গতকাল রাতে ওই তিনজনকে আসামি করে টুঙ্গিপাড়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।
মামলার এজাহারে ওই নারীর অভিযোগ, আলীম বিশ্বাসের সঙ্গে মুঠোফোনে তাঁর পরিচয়। ওই পরিচয়ের সূত্র ধরে আলীমের সঙ্গে ওই নারী টুঙ্গিপাড়ায় যান। সেখানে আলীম তাঁকে চাকরি দেবেন বলে আশ্বাস দেন। এ ব্যাপারে কাউন্সিলরের সঙ্গে কথা বলার জন্য ওই নারীকে মধুমতী মোটেলের একটি ঘরে নিয়ে যান।
ওই নারী জানান, মধুমতির ওই কক্ষে কাউন্সিলর তাঁকে ধর্ষণ করেন। কাউন্সিলর শৌচাগারে ঢুকলে তিনি মোটেল থেকে বের হয়ে পাশের টুঙ্গিপাড়া থানায় যান। অভিযোগ শুনে পুলিশ ওই মোটেলে অভিযান চালান। সেখান থেকে পুলিশ কাউন্সিলরসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে।
টুঙ্গিপাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নূর হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, ওই নারী শারীরিক পরীক্ষার জন্য গোপালগঞ্জের সিভিল সার্জনের কার্যালয়ে গেছেন। এ ছাড়া কাউন্সিলরসহ গ্রেপ্তার তিনজনকে জেলার মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। তবে কোনো রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়নি।

শেয়ার করুন