গভীররাতে ঢাবির হলে পুলিশের অভিযান

0
39
Print Friendly, PDF & Email

অবৈধ অবস্থান, বহিরাগতদের চিহ্নিত করা এবং মাদকদ্রব্যসহ অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে গভীর রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) জগন্নাথ হলে তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশ। এতে ছয়জন বহিরাগতকে আটক করেছে বলে জানা গেছে।

শুক্রবার দিবাগত রাত ১টা থেকে ৩টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও অর্ধশতাধিক পুলিশ জগন্নাথ হলে এই অভিযান চালায়।

হলের আবাসিক প্রভোস্ট বলেন, হলে বহিরাগত অবস্থান একটি বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া অবৈধ অস্ত্রও জমা থাকছে বলে একটি সূত্রে জানা গেছে। তাই রাতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও পুলিশ হল তল্লাশি চালিয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত ১টার দিকে প্রায় অর্ধশতাধিক পুলিশ আচমকা হলের মধ্যে প্রবেশ করে এবং হলের বিভিন্ন রুম তল্লাশি করতে থাকে। এতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি আশপাশের হলে জানাজানি হলে বিভিন্ন হলের শিক্ষার্থীরা হলে এসে ভীড় জমায়।

তল্লাশিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আমজাদ আলী, পুলিশের রমনা জোনের উপ-কমিশনার (ডিসি) মারুফ হোসেন, সহকারী কমিশনার (এসি) শিবলী নোমান ও রেজাউল করিম, শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম ছিলেন বলে জানা গেছে।

ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক ড. এম আমজাদ আলী শীর্ষ নিউজকে জানান, হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা বিভিন্নভাবে ঢাকা কলেজ, সিটি কলেজ ও আশপাশের কলেজের শিক্ষার্থী এবং চাকরিজীবী ও ব্যবসায়ীদের টাকার বিনিময়ে হলে রাখছে। এছাড়া বিভিন্ন অবৈধ দ্রব্যও রাখা হচ্ছে। এমন তথ্য আমাদের কাছে আসে। আমরা তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ নিয়ে তল্লাশি করি। এতে ছয়জন বহিরাগতকে আটক করা হয়েছে।

এছাড়া তিনি বলেন, বহিরাগতরা বিষয়টি টের পেয়ে তল্লাশির আগেই হল ত্যাগ করেছে। তবে অন্যকিছু পাওয়া যায়নি বলে তিনি জানান।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বলেন, অবৈধ দ্রব্য ও বহিরাগতকে আটক করার জন্য হলে তল্লাশি চালানো হয়েছিল। এতে বহিরাগত ছয়জনকে আটক করা হয়েছে।

শেয়ার করুন