শেরপুরে বন্দুকযুদ্ধে এএসপিসহ আহত ১৬: আগ্নেয়াস্ত্রসহ গ্রেফতার ১১

0
214
Print Friendly, PDF & Email

মৌলভীবাজারসহ চার জেলার সঙ্গমস্থল শেরপুরে পুলিশ-ডাকাত বন্দুকযুদ্ধে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সিরাজুল হুদাসহ পাঁচ পুলিশ ও ১১ ডাকাত আহত হয়েছেন। এ সময় চারটি দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র, ২০ রাউন্ড গুলি ও বিভিন্ন সরঞ্জামাদিসহ আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ১১ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে মডেল থানা পুলিশ।

রোববার রাত ১২টায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সিরাজুল হুদার নেতৃত্বে মডেল থানা পুলিশের একটি বিশেষ দল শেরপুর এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় চারটি দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র, ২০ রাউন্ড গুলি ও ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়। এক পর্যায়ে ডাকাত দল পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। এতে ডাকাত দলের ১১ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয় এবং সহকারী পুলিশ সুপার সিরাজুল হুদাসহ পাঁচ পুলিশ ও ১১ ডাকাত আহত হয়। পরে গ্রামবাসীর সহায়তায় পুলিশ আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ১১ সদস্যকে গ্রেফতার করে। এদের মধ্যে ডাকাত দলের দুই সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়।

আহত পুলিশ সদস্যরা মৌলভীবাজার হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিলেও গুলিবিদ্ধ ডাকাত সদস্যরা চিকিৎসাধীন রয়েছে। ডাকাতদের নাম জানা যায়নি। গ্রেফতারকৃত ডাকাতরা জানায়, সিলেটের গোয়ালাবাজার এলাকায় ডাকাতির জন্য শেরপুর এলাকায় তারা জড়ো হয়েছিল।

মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুছ ছালেক জানান, বিগত কয়েকদিন ধরে চুরি, ডাকাতি ও ছিনতাই বেড়ে গেছে। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে সিলেট জেলার বিভিন্ন থানায় মামলা রয়েছে।

শেয়ার করুন