বাগরেহাটে হত্যা মামলায় ৪ জনরে মৃত্যদন্ড ৬ জনরে

0
272
Print Friendly, PDF & Email

বাগরেহাটে ইলয়িাছ হাওলাদার হত্যা মামলায় ৪ বনদস্যুর মৃত্যদন্ড এবং ৬ জনরে যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদশে দয়িছেনে আদালত। রোববার দুপুরে বাগরেহাট জলো ও দায়রা জজ আদালতরে বচিারক এস এম সোলায়মান এই রায় ঘোষণা করনে। এসময় দণ্ডাদশে প্রাপ্ত আসামীদরে ৫ জন আদালতে উপস্থতি ছলিনে। সুন্দরবনে ব্যবসায়ী মোঃ. ইলয়িাস হাওলাদার হাওলাদার হত্যা মামলায় আদালত এই রায় প্রদান করনে।রায়ে আদালত যাবজ্জীবন দন্ড প্রাপ্ত প্রত্যকে আসামীকে ৩০২ ধারায় যাবাজ্জীবন কারাদন্ডাদশে এর সাথে ২০ হাজার টাকা জরমিানা, অনাদায়ে আরো দুই বছররে জলে এবং ২০১ ধারায় ৫ বছররে সশ্রম কারাদন্ড, ২ হাজার টাকা জরমিানা এবং অনাদায়ে আরো ৬মাসরে সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করনে। মৃত দণ্ডাদশে প্রাপ্ত আসামীরা হলনে, বাগরেহাটরে সদর উপজলোর ডমো গ্রামরে ইসুফ তরফদাররে ছলেে আতাহার আলী তরফদার ওরফে পরান বাবু, রামপাল উপজলোর কাটাখালি গ্রামরে বজলুর রহমানরে ছলেে বাবুল গাজী, কালয়িা গ্রামরে হাজি নোয়াব আলী শখেরে ছলেে কালাম ওরফে কামাল শখে ও রনজয়পুর গ্রামরে কদম আলীর ছলেে বাচ্চু। এদরে মধ্যে আতাহার আলী তরফদার বাদে বাকীরা পলট রয়ছেনে। আর যাবজ্জীবন দণ্ডাদশে প্রাপ্তরা হলনে, সদর উপজলোর কালয়িা গ্রামরে কাসমে শখেরে ছলেে শহদিুল শখে, কাসমেপুর গ্রামরে আলী শখেরে ছলেে ইশারাত ওরফে ইশা, কালয়িা গ্রামরে মাজদে মোল্লার ছলেে ফরহাদ মোল্লা, একলাস শখেরে ছলেে ফারুক, ইসরাফলি ডাকুয়ার ছলেে শানু ডাকুয়া এবং তলেখিালি গ্রামরে রাহলে উদ্দনি শখেরে ছলেে আব্দুল হকীম শখে। এদরে মধ্যে শানু ডাকুয়া এবং আব্দুল হাকমি শখে পলাতক রয়ছেনে। মামলার সংক্ষপ্তি বর্বিণই থকেে জানান যায়, ১৯৯৮ সালরে ১৯ নভম্বের সুন্দবনরে জলেদেরে দাদন প্রদানকারী ব্যবসায়ী মোঃ. ইলয়িাস হাওলাদার, রফকিুল ইসলাম, শুকুর আলীসহ কয়কে জন জলেদেরে সাথে জউি-ধারা ফরস্টে স্টশেন থকেে পাস নয়িে সুন্দরবনে মাছরে পোনা সংগ্রহে যায়। বকিাল আনুমানকি ৫টার দকিে আসামরিা দলবল নয়িে তাদরে উপর আক্রমন করলে মোঃ. ইলয়িাস হাওলাদার অসমই বাবুলসহ কয়কে জনকে চনিে ফলে।েতখন তারা তাকে গুলি করে হত্যা কর।ে পরে তার লাশ টুকর টুকর করে কটেে নৌকা সহ সুন্দরবনরে খালে ডুবয়িে দয়ে।এর পর ওই বছররে ২৫ নভম্বের নহিত ইলয়িাস হাওলাদার এর ছলেে মোঃ. সাইফুর জামান প্রন্সি বাদী হতে আসামি দরে নামে মামলা দায়রে করনে।মামলার তদন্তকারী র্কমর্কতা সআিইডি এর মোঃ. নজরুল ইসলাম ২০০২ সালে ৫ মে ১১ জনকে আদালতে অভযিোগপত্র (র্চাজশীট) দাখলি করনে। আদালত মামলার ১০ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্যগ্রহণ শষেে এই রায় প্রদান করনে। আসামীদরে মধ্যে বাগরেহাট সদর উপজলোর ডমো গ্রামরে খালকে হাওলাদাররে ছলেে রফকি ওরয়ে দুলু মামলা চলাকালে মারা যাওয়ায় আদালত তাকে এই মামলা থকেে অব্যহতি প্রদান করনে।

শেয়ার করুন