শাহবাগে গণজাগরণ মঞ্চের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ চলছে

0
107
Print Friendly, PDF & Email

 রাজধানীর শাহবাগে গণজাগরণ মঞ্চের দুইপক্ষের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ চলছে। পাল্টাপাল্টি স্লোগানে শাহবাগে জনমনে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

দুইপক্ষই একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধে বিরোধিতা করার অভিযোগে অভিযুক্ত জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী ও মতিউর রহমান নিজামীসহ সকল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ত্বরান্বিত করার দাবিতে এ সমাবেশ করছে।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে জাতীয় জাদুঘরের সামনে পূর্বঘোষিত এ কর্মসূচি শুরু করে তারা।

জাদুঘরের সামনের ফটকে গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক কামাল পাশা চৌধুরীর নেতৃত্বে একপক্ষ এবং জাদুঘরের দক্ষিণ পার্শ্বে গণজাগরণ মঞ্চের বিতর্কিত মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারের নেতৃত্বে অন্যপক্ষ সমাবেশ করছে।

কামাল পাশা চৌধুরীর নেতৃত্বে সমাবেশে জাতীয় কবিতা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কবি আসলাম সানি, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সভাপতি মেহেদী হাসান, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম একাত্তরের নেতা ও ছাত্রলীগের উপ-আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক নূর কুতুবুল আলম, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক এফএম শাহীন, আতিক মাহমুদ, হাবিবুল্লাহ মিসবাহ, মুক্তিযোদ্ধা বিচ্চু জালাল প্রমুখ উপস্থিত আছেন।

অন্যদিকে গণজাগরণ মঞ্চের বিতর্কিত মুখপাত্র ইমরান এইচের নেতৃত্বে মানবাধিকারকর্মী খুশি কবির, ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লাকি আক্তার, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক মাহমুদুল হক মুন্সী বাধন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের ঢাবি আহ্বায়ক প্রীতিলতা প্রমুখ উপস্থিত আছেন।

সমাবেশ শেষে ইমরানের পক্ষ যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ত্বরান্বিত করার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও কামাল পাশার পক্ষ থেকে সাঈদীর প্রতীকী ফাঁসি দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

সমাবেশ চলাকালীন সময়ে শাহবাগে বিপুল সংখ্যক পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

উল্লেখ্য, আগামীতে কিভাবে আন্দোলন করা যায় এ লক্ষ্যে আগামীকাল শুক্রবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (পিজি) হাসপাতালের একটি মিলনায়তনে সব দলের সমন্বয়ে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছে গণজাগরণ মঞ্চের ইমরান পক্ষের মাহমুদুল হক মুন্সী বাধন।

এর আগে সংবাদ সম্মেলন করে কামাল পাশার পক্ষের কর্মীরা ইমরানকে গণজাগরণ মঞ্চ থেকে অব্যাহতি ঘোষণা দেয়। এরপর থেকেই দুইপক্ষ আলাদা কর্মসূচি পালন করে আসছে।

রাজধানীর শাহবাগে গণজাগরণ মঞ্চের দুইপক্ষের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ চলছে। পাল্টাপাল্টি স্লোগানে শাহবাগে জনমনে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

দুইপক্ষই একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধে বিরোধিতা করার অভিযোগে অভিযুক্ত জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী ও মতিউর রহমান নিজামীসহ সকল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ত্বরান্বিত করার দাবিতে এ সমাবেশ করছে।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে জাতীয় জাদুঘরের সামনে পূর্বঘোষিত এ কর্মসূচি শুরু করে তারা।

জাদুঘরের সামনের ফটকে গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক কামাল পাশা চৌধুরীর নেতৃত্বে একপক্ষ এবং জাদুঘরের দক্ষিণ পার্শ্বে গণজাগরণ মঞ্চের বিতর্কিত মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারের নেতৃত্বে অন্যপক্ষ সমাবেশ করছে।

কামাল পাশা চৌধুরীর নেতৃত্বে সমাবেশে জাতীয় কবিতা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কবি আসলাম সানি, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সভাপতি মেহেদী হাসান, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম একাত্তরের নেতা ও ছাত্রলীগের উপ-আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক নূর কুতুবুল আলম, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক এফএম শাহীন, আতিক মাহমুদ, হাবিবুল্লাহ মিসবাহ, মুক্তিযোদ্ধা বিচ্চু জালাল প্রমুখ উপস্থিত আছেন।

অন্যদিকে গণজাগরণ মঞ্চের বিতর্কিত মুখপাত্র ইমরান এইচের নেতৃত্বে মানবাধিকারকর্মী খুশি কবির, ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লাকি আক্তার, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক মাহমুদুল হক মুন্সী বাধন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের ঢাবি আহ্বায়ক প্রীতিলতা প্রমুখ উপস্থিত আছেন।

সমাবেশ শেষে ইমরানের পক্ষ যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ত্বরান্বিত করার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও কামাল পাশার পক্ষ থেকে সাঈদীর প্রতীকী ফাঁসি দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

সমাবেশ চলাকালীন সময়ে শাহবাগে বিপুল সংখ্যক পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

উল্লেখ্য, আগামীতে কিভাবে আন্দোলন করা যায় এ লক্ষ্যে আগামীকাল শুক্রবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (পিজি) হাসপাতালের একটি মিলনায়তনে সব দলের সমন্বয়ে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছে গণজাগরণ মঞ্চের ইমরান পক্ষের মাহমুদুল হক মুন্সী বাধন।

এর আগে সংবাদ সম্মেলন করে কামাল পাশার পক্ষের কর্মীরা ইমরানকে গণজাগরণ মঞ্চ থেকে অব্যাহতি ঘোষণা দেয়। এরপর থেকেই দুইপক্ষ আলাদা কর্মসূচি পালন করে আসছে।

রাজধানীর শাহবাগে গণজাগরণ মঞ্চের দুইপক্ষের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ চলছে। পাল্টাপাল্টি স্লোগানে শাহবাগে জনমনে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

দুইপক্ষই একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধে বিরোধিতা করার অভিযোগে অভিযুক্ত জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী ও মতিউর রহমান নিজামীসহ সকল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ত্বরান্বিত করার দাবিতে এ সমাবেশ করছে।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে জাতীয় জাদুঘরের সামনে পূর্বঘোষিত এ কর্মসূচি শুরু করে তারা।

জাদুঘরের সামনের ফটকে গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক কামাল পাশা চৌধুরীর নেতৃত্বে একপক্ষ এবং জাদুঘরের দক্ষিণ পার্শ্বে গণজাগরণ মঞ্চের বিতর্কিত মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারের নেতৃত্বে অন্যপক্ষ সমাবেশ করছে।

কামাল পাশা চৌধুরীর নেতৃত্বে সমাবেশে জাতীয় কবিতা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কবি আসলাম সানি, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সভাপতি মেহেদী হাসান, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম একাত্তরের নেতা ও ছাত্রলীগের উপ-আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক নূর কুতুবুল আলম, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক এফএম শাহীন, আতিক মাহমুদ, হাবিবুল্লাহ মিসবাহ, মুক্তিযোদ্ধা বিচ্চু জালাল প্রমুখ উপস্থিত আছেন।

অন্যদিকে গণজাগরণ মঞ্চের বিতর্কিত মুখপাত্র ইমরান এইচের নেতৃত্বে মানবাধিকারকর্মী খুশি কবির, ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লাকি আক্তার, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক মাহমুদুল হক মুন্সী বাধন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের ঢাবি আহ্বায়ক প্রীতিলতা প্রমুখ উপস্থিত আছেন।

সমাবেশ শেষে ইমরানের পক্ষ যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ত্বরান্বিত করার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও কামাল পাশার পক্ষ থেকে সাঈদীর প্রতীকী ফাঁসি দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

সমাবেশ চলাকালীন সময়ে শাহবাগে বিপুল সংখ্যক পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

উল্লেখ্য, আগামীতে কিভাবে আন্দোলন করা যায় এ লক্ষ্যে আগামীকাল শুক্রবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (পিজি) হাসপাতালের একটি মিলনায়তনে সব দলের সমন্বয়ে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছে গণজাগরণ মঞ্চের ইমরান পক্ষের মাহমুদুল হক মুন্সী বাধন।

এর আগে সংবাদ সম্মেলন করে কামাল পাশার পক্ষের কর্মীরা ইমরানকে গণজাগরণ মঞ্চ থেকে অব্যাহতি ঘোষণা দেয়। এরপর থেকেই দুইপক্ষ আলাদা কর্মসূচি পালন করে আসছে। – See more at: http://www.sheershanews.com/2014/05/08/36023#sthash.5c1T5htL.dpuf

রাজধানীর শাহবাগে গণজাগরণ মঞ্চের দুইপক্ষের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ চলছে। পাল্টাপাল্টি স্লোগানে শাহবাগে জনমনে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

দুইপক্ষই একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধে বিরোধিতা করার অভিযোগে অভিযুক্ত জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী ও মতিউর রহমান নিজামীসহ সকল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ত্বরান্বিত করার দাবিতে এ সমাবেশ করছে।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে জাতীয় জাদুঘরের সামনে পূর্বঘোষিত এ কর্মসূচি শুরু করে তারা।

জাদুঘরের সামনের ফটকে গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক কামাল পাশা চৌধুরীর নেতৃত্বে একপক্ষ এবং জাদুঘরের দক্ষিণ পার্শ্বে গণজাগরণ মঞ্চের বিতর্কিত মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারের নেতৃত্বে অন্যপক্ষ সমাবেশ করছে।

কামাল পাশা চৌধুরীর নেতৃত্বে সমাবেশে জাতীয় কবিতা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কবি আসলাম সানি, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সভাপতি মেহেদী হাসান, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম একাত্তরের নেতা ও ছাত্রলীগের উপ-আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক নূর কুতুবুল আলম, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক এফএম শাহীন, আতিক মাহমুদ, হাবিবুল্লাহ মিসবাহ, মুক্তিযোদ্ধা বিচ্চু জালাল প্রমুখ উপস্থিত আছেন।

অন্যদিকে গণজাগরণ মঞ্চের বিতর্কিত মুখপাত্র ইমরান এইচের নেতৃত্বে মানবাধিকারকর্মী খুশি কবির, ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লাকি আক্তার, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক মাহমুদুল হক মুন্সী বাধন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের ঢাবি আহ্বায়ক প্রীতিলতা প্রমুখ উপস্থিত আছেন।

সমাবেশ শেষে ইমরানের পক্ষ যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ত্বরান্বিত করার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও কামাল পাশার পক্ষ থেকে সাঈদীর প্রতীকী ফাঁসি দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

সমাবেশ চলাকালীন সময়ে শাহবাগে বিপুল সংখ্যক পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

উল্লেখ্য, আগামীতে কিভাবে আন্দোলন করা যায় এ লক্ষ্যে আগামীকাল শুক্রবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (পিজি) হাসপাতালের একটি মিলনায়তনে সব দলের সমন্বয়ে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছে গণজাগরণ মঞ্চের ইমরান পক্ষের মাহমুদুল হক মুন্সী বাধন।

এর আগে সংবাদ সম্মেলন করে কামাল পাশার পক্ষের কর্মীরা ইমরানকে গণজাগরণ মঞ্চ থেকে অব্যাহতি ঘোষণা দেয়। এরপর থেকেই দুইপক্ষ আলাদা কর্মসূচি পালন করে আসছে। – See more at: http://www.sheershanews.com/2014/05/08/36023#sthash.5c1T5htL.dpuf

শেয়ার করুন