কুষ্টিয়ার আইলচারায় কিশোরকে অপহরনের চেষ্টা ৩ অপহরণকারীকে গণধোলাই শেষে পুলিশে সোপর্দ \ বিক্ষুব্ধ জনতা পুড়িয়ে দিয়েছে মাইক্রোবাস

0
176
Print Friendly, PDF & Email

কুষ্টিয়া সদর উপজেলার আইলচারায় এক কিশোরকে অপহরণ চেষ্টা কালে ৩ অপহরণকারীকে গণধোলাই শেষে পুলিশে দিয়েছে জনতা৷ এসময় বিক্ষুব্ধ জনতা অপহরণের কাজে ব্যাবহৃত মাইক্রোবাসটি পুড়য়ে দেয়৷ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আইলচারা হাজী মোড়ে এ ঘটনা ঘটে৷
প্রত্যক্ষদশর্ীরা জানায়, সন্ধ্যায় ওই কিশোর বল্লভপুর মিল থেকে কাজ শেষে সাইকেল চড়ে বাড়িতে ফিরছিল৷ এমন সময় একটি প্রাইভেট মাইক্রো গাড়ী তার বাই-সাইকেলের সামনে থামিয়ে গতিরোধ করে৷ গাড়ী থামিয়ে সঙ্গে সঙ্গে তাকে তুলে নেয় গাড়ীতে৷ ওই কিশোর চিত্‍কার শুরু করলে স্থানীয়রা গাড়ীটিকে আটক করার চেষ্টা করে৷ এ সময় মাইক্রোটি দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে পালানোর চেষ্টা করে৷ স্থানীয়রা চারিদিকে ফোন দিলে খাজানগরের ভীতর থেকে এলাকাবাসী গাড়ীর গতিরোধ করে গাড়ীটিকে আটক করে৷ এ সময় ৩ অপহরণকারী পালানোর চেষ্টা করলে স্থানীয়রা তাদেরকে আটক করে গণপিটুনী দিয়ে তাদেরকে পুলিশে দেয়৷ এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধরা মাইক্রোটিকে পুড়িয়ে দেয়৷ আহত অপহরণকারীদের উদ্ধার করে পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি করেছে৷ উদ্ধারকৃত অপহৃত কিশোরের নাম আব্দুল মতিন(১৮)৷ সে বড় আইলচারা গ্রামের আব্দুর রহিমের পুত্র৷
এ বিষয়ে সদর সার্কেল লিমন রাই ঘটনার সত্যতা স্বিকার করে জানায়, আমরা অপহরণের খবর পেয়ে বিভিন্ন স্থানে চেক পোষ্ট বসায়৷ পরে খাজানগরে জনগনের সহযোগীতায় অপহরণকারীদের আটক করা হয়৷ এসময় বিক্ষুব্ধ জনতা অপহরণের কাজে ব্যাবহৃত মাইক্রোবাসটি পুড়য়ে দেয়৷

শেয়ার করুন