দেশে ধান্ধাবাজদের অর্থনীতি বিরাজমান

0
144
Print Friendly, PDF & Email

বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ও পল্লী কর্মসহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) চেয়ারম্যান ড. খলীকুজ্জমান মন্তব্য করেছেন, বাংলাদেশে বড় ধরনের ধান্ধাবাজদের অর্থনীতি বিরাজমান। যারা বাজেটের বড় অংশ নিয়ন্ত্রণ করেন। এরা বেশ শক্তিশালী গোষ্ঠী। তাদের কাছ থেকে অর্থনীতিকে বের করে আনতে সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে।
গতকাল রাজধানীর ডেইলি স্টার ভবনের এ এস মাহমুদ সেমিনার হলে দুপুরে এক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। গভর্নেন্স অ্যাডভোকেসি ফোরাম এ সভার আয়োজন করে। সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক এম এম আকাশ।স্থানীয় পর্যায়ের অর্থনীতি পিছিয়ে পড়ার অন্যতম কারণ হলো প্রশাসন ও রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব বলেও উল্লেখ করেন খলীকুজ্জমান।
সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, বিগত ২ নির্বাচনের ইশতেহার ও ভিশন ২০২১’র আলোকে জনগণের কাছে যে অঙ্গীকার করছেন তা পূরণ করলেই আমরা খুশি। দেশের স্থানীয় সরকারের জন্য বরাদ্দ অপ্রতুল উল্লেখ করে অধ্যাপক ড. তোফায়েল আহমেদ বলেন, দেশে স্থানীয় সরকারের জন্য যে বরাদ্দ করা হয় তা কতটুকু যুক্তিসঙ্গত তা একটা প্রশ্ন। স্থানীয় সরকার পর্যায়ে স্টেইট ফাইন্যান্স কমিশনের নিয়মে বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে না বলেও উল্লেখ করেন তিনি। বাজেট বিকেন্দ্রীকরণ ও স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের জন্য যুক্তিসঙ্গত বরাদ্দ’ শীর্ষক ওই সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান। বিশেষ অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মাহাবুব আরা গিনি, স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ড. তোফায়েল আহমেদ।
তিনি বলেন, স্থানীয় সরকারে আসলেই কোনো বরাদ্দ যায় না। ১৫ থেকে ২০ শতাংশ যেটুকু বরাদ্দ যায় তা থেকেও মন্ত্রণালয় আরও কিছু টাকা রেখে দেন। যা তারা বিদেশ ভ্রমণসহ নানা কাজে ব্যায় করেন। যা ফকিরের কাছে চাঁদা নেওয়ার মত ব্যাপার। জেলা বাজেট বরাদ্দ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি এখনই জেলা বাজেট বরাদ্দের পক্ষপাতী না। কারণ দেশের যে জেলা পরিষদগুলো রয়েছে তাদের কার্যক্রম অনেক স্বল্প।

শেয়ার করুন