তিন র্যাব কর্মকর্তাকে বাধ্যতামূলক অবসর

0
126
Print Friendly, PDF & Email

নারায়ণগঞ্জে সাত খুনের ঘটনায় র‌্যাব-১১এর সিইও লে. কর্নেল তারেক সাইদসহ তিন কর্মকর্তাকে অবসরে পাঠানো হয়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার সেনা সদর দফতর ও নৌবাহিনী সদর দফতর থেকে এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।
তিন কর্মকর্তার মধ্যে সেনাবাহিনীর দুজনকে অকালীন এবং নৌবাহিনীর একজনকে বাধ্যতামূলক অবসর দেয়া হয়।
এই তিন কর্মকর্তা হলেন র‌্যাব-১১ এর সদ্য সাবেক অধিনায়ক লে. কর্নেল তারেক সাঈদ মোহাম্মাদ, মেজর আরিফ হোসেন ও নারায়ণগঞ্জ ক্যাম্পের সাবেক প্রধান লে. কমান্ডার এম এম রানা।
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়। তদন্তে দোষী প্রমাণ হলে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
প্রধানমন্ত্রীর তথ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী সংবাদ মাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
লে. কর্নেল তারেক সাইদ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার জামাতা।
নারায়ণগঞ্জে নিহত কাউন্সিলর নজরুল ইসলামের পরিবারের অভিযোগ তারেকসহ র‌্যাবের এই তিন কর্মকর্তার যোগসাজসে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা নূর হোসেন অপহরণ ও হত্যার ঘটনা ঘটিয়েছে। এ ঘটনার জন্য র‌্যাবকে ছয় কোটি টাকা দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন নজরুলের শ্বশুর শহীদুল ইসলাম। তার এ অভিযোগ প্রকাশের পরই তদন্তে কমিটি গঠন করেছে র‌্যাব। একই সাথে নিরপেক্ষ কমিটি গঠনের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। নারায়ণগঞ্জের অপহরণের পর সাতজনের লাশ উদ্ধারের দিনই তারেক সাইদসহ প্রশাসনের পাঁচ কর্মকর্তাকে নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রত্যাহার করা হয়।

শেয়ার করুন