বাংলাদেশের নীতিতে ভারতের প্রবল প্রভাব রয়েছে

0
129
Print Friendly, PDF & Email

মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর মনে করে বাংলাদেশের বৈদেশিক ও অভ্যন্তরীণ নীতিতে ভারতের প্রবল প্রভাব রয়েছে। মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের ২০১৩ সালের সন্ত্রাসবিরোধী প্রতিবেদনে একথা বলা হয়েছে। এতে উল্লেখ করা হয়, সরকারের পদক্ষেপের কারণে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসে বাংলাদেশের ভূখণ্ড ব্যবহার করা কঠিন হয়ে পড়েছে।
মার্কিন প্রতিবেদনটি বৃহস্পতিবার কংগ্রেসে পাঠানো হয়। এতে বলা হয়, ‘বাংলাদেশের পররাষ্ট্র ও অভ্যন্তরীণ নীতিতে আঞ্চলিক শক্তি বিশেষ করে ভারতের বিপুল প্রভাব রয়েছে। অতীতে ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক আন্তঃরাষ্ট্রীয় হুমকির সূচনা করেছিল। কিন্তু বর্তমান সরকার সন্ত্রাস দমনে আঞ্চলিক সহযোগিতার বিষয়ে আগ্রহ দেখিয়েছে।’
প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, ‘আন্তর্জাতিক সন্ত্রাস দমনে বাংলাদেশ প্রভাবশালী অংশীদার। সরকারের সন্ত্রাসবিরোধী কার্যক্রমের ফলে বাংলাদেশের ভূখণ্ডে আন্তঃরাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা কঠিন হয়ে পড়েছে। ২০১৩ সালে বাংলাদেশে বড় কোনও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ঘটেনি। সন্ত্রাসবিরোধী সহযোগিতা বৃদ্ধিতে ২০১৩ সালের ২২ অক্টোবর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং বাংলাদেশ সন্ত্রাসবিরোধী সহযোগিতা উদ্যোগ সই করেছে।’
প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘বাংলাদেশ সরকার অভ্যন্তরীণ ও আন্তঃরাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসী গ্র“প দমনে রাজনৈতিক সদিচ্ছা এবং দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছে। বাংলাদেশে বেসামরিক ব্যক্তি, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা এবং সামরিক পক্ষের মনিটর করার জন্য সামর্থ্য বৃদ্ধি, সন্ত্রাস শনাক্ত করে তা প্রতিরোধে ২০১৩ সালে কর্মসূচি সমর্থন দিয়েছে।’ প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ‘বাংলাদেশে ফৌজদারি বিচার ব্যবস্থা ২০০৯ সালের সন্ত্রাসবিরোধী আইন পরিপূর্ণ বাস্তবায়নের অধীন আছে। ২০১৩ সালের পার্লামেন্টে সন্ত্রাসবিরোধী আইনের ব্যাপক সংশোধন করা হয়েছে। সংশোধনীর খসড়া প্রস্তুতিতে মার্কিন বিচার ও অর্থ দফতরের সহায়তা নেয়া হয়েছে, যাতে আন্তর্জাতিক মান বজায় রাখতে অনেক করণীয় বিষয় উল্লেখ আছে।’
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিবেদনে সন্ত্রাসবিরোধী কার্যক্রমে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা গ্রহণের বিস্তারিত উল্লেখ করা হয়। এতে বলা হয়, ‘মার্কিন সন্ত্রাসবিরোধী কর্মসূচিতে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ রয়েছে। পুলিশের সদস্যরা সঙ্কটের সাড়া, সীমান্ত নিরাপত্তা এবং তদন্তের বিষয়ে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছে।’ প্রতিবেদনে সন্ত্রাসে অর্থায়ন বন্ধে মানি লন্ডারিং প্রতিরোধের কার্যক্রমে বাংলাদেশের অংশগ্রহণের ভূয়সী প্রশংসা করা হয়।

শেয়ার করুন