থানায় ছাত্রলীগের হামলা ; ৪ পুলিশ আহত

0
182
Print Friendly, PDF & Email

রাজধানীর নীলক্ষেত এলাকায় শুক্রবার দুপুরে খাবারের দোকানে কথা কাটাকাটির জের ধরে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা নিউমার্কেট থানায় হামলা চালিয়েছে। এতে পুলিশসহ চার জন আহত হয়েছেন।

আহতরা হলেন- নিউমার্কেট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হানিফ ও ইফতেখার, পুলিশ কনস্টেবল শামীম ও আনসার সদস্য সবুজ।

এ ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে চার জনকে আটক করেছে আটকরা হলো- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র নওশাদ, অর্থনীতি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র বিপুল, বাংলা দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মুকিত ও ইংরেজি প্রথম বর্ষের ছাত্র সোহান। তাদেরকে নিউমার্কেট থানায় রাখা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার বেলা পৌনে ৩টায় নীলক্ষেত মোড়ে একটি খাবারের দোকানে নীলক্ষেত থানার এক উপপরিদর্শক (এসআই) ও এফ রহমান হলের কয়েকজন ছাত্রলীগ কর্মী খেতে বসেন।

এর মধ্যে এসআইয়ের ওয়্যারলেস বাজতে থাকলে ছাত্রলীগের এক নেতা তার ওয়্যারলেসটি বন্ধ করতে বলেন। এ সময় এসআই বলেন, বন্ধ করা যাবে না, এটা সরকারি কাজে যোগাযোগের জন্য। এ নিয়ে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সাথে এসআইয়ের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ছাত্রলীগের চার কর্মীকে ধরে নিয়ে যায় নিউমার্কেট থানা পুলিশ।

পরে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা নীলক্ষেত থানায় হামলা চালিয়ে তাকে উদ্ধার করেন এবং নিউমার্কেট থানার সাইনবোর্ড ভেঙে ফেলেন। ঘটনার সময় ছাত্রলীগ কর্মীরা নীলক্ষেত থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) গাড়ি ভাঙচুর করেন।

ছাত্রলীগ কর্মীরা জানান, নীলক্ষেত খাবারের দোকানে পুলিশের সঙ্গে কয়েকজন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা বাকবিতণ্ডা হলে পুলিশ চার জনকে ধরে নিয়ে যান। খবর পেয়ে আমরা থানায় গিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করি। আটক বিপুল ও মুকিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এফ রহমান হলের ছাত্রলীগের পদে রয়েছেন বলে জানা গেছে।

নিউমার্কেট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াসির আরাফাত খাঁন বলেন, পুলিশ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মাঝে ভুল বুঝাবুঝির জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে। আমরা মীমাংসার চেষ্টা করছি।

শেয়ার করুন