তত্ত্বাবধায়ক ছাড়া সুষ্ঠু নির্বাচন অসম্ভব: রিজভী

0
118
Print Friendly, PDF & Email

বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব এডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেছেন, শেখ হাসিনা ক্ষমতা আঁকড়ে রাখার জন্যই সংবিধান কেটে তত্ত্বাবধায়ক সরকার পদ্ধতি বাতিল করেছেন।

তিনি বলেন, উপজেলা নির্বাচনে ক্ষমতাসীনদের দখলদারিত্বের পর বিএনপির তত্ত্বাবধায়ক সরকার দাবির যৌক্তিকতা আরও একবার প্রমাণ হয়েছে। তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া বাংলাদেশে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়।

রবিবার সকালে হার্ভার্ডে ‘বাংলাদেশে গণতন্ত্র ও ন্যায়বিচারের অন্বেষণ এবং সুষ্ঠ নির্বাচন’ শীর্ষক এক সেমিনারে রিজভী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, শুধুমাত্র দিল্লির খুশিকেই নিজের প্রাপ্তি মনে করেন শেখ হাসিনা। তবে দেশের মানুষ আর আওয়ামী লীগকে বিশ্বাস করে না। মানুষ তাদের ষড়যন্ত্র বুঝতে পেরেছে। জনগণ শিগগিরই তাদের জবাব দেবে।

রিজভী অবিলম্বে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে শেঞ হাসিনার প্রতি আহ্বান জনান।

তিনি বলেন, হত্যা, গুম আর নিখোঁজ মানুষের সংখ্যা দিনকে দিন বাড়ছে। প্রতিদিন গড়ে ১০/১৫টি করে খুন হচ্ছে। কোন কোন দিন এর সংখ্যা ৫০ ছড়িয়ে যায়। এ রকম এক দুর্বিসহ সময় অতিক্রম করছে দেশের মানুষ।

প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী সেমিনারের দ্বিতীয় পর্বে উপস্থিত দর্শকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন বিএনপির দপ্তরের দায়িত্বে থাকা এই যুগ্ম-মহাসচিব।

বোস্টনের সোসাল জাস্টিস ওয়াচ গ্রুপ আয়োজিত সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন ইউনিভার্সিটি অব ম্যাসাচুসেটস হিসাব বিভাগের চেয়ারম্যান ড. খন্দকার করিম।

সেমিনারের মডারেটর ছিলেন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের হার্ভার্ড মেডিকেল স্কুলের রিসার্চ ফ্যাকাল্টি একেএম খায়রুল ওয়ারা ও কার্টজেস মাইক্রোকোপির সিনিয়র সাইন্টিস এফএইচএম ফরিদুর রহমান।

ম্যাসাচুসেটসের ট্রেনার্জি করপোরেশনের সিটিও ড. এনায়েত উল্লাহও সেমিনারে বক্তব্য দেন।

শেয়ার করুন