কুষ্টিয়ায় ডিবি পুলিশের অভিযানে মন্ত্রী প্রতিমন্ত্রী ও এমপিদের স্বাক্ষরিত জাল প্যাড, সীল, ডিওলেটারসহ ৩ প্রতারক আটক

0
140
Print Friendly, PDF & Email

আশরাফুল ইসলাম অনিক , কুষ্টিয়া প্রতিনিধি \\
কুষ্টিয়ায় ডিবি পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের মূল হোতা রম্নবেল (৩২), তার সহযোগি রাজু আজম্মেদ (৩৫) ও সিল তৈরির নায়ক আজিজুর রহমান (৪৫) কে আটক করেছে৷ আটকৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে তথ্য ও ভূমী মন্ত্রীসহ বিভিন্ন প্রতিমন্ত্রী ও কুষ্টিয়া সদও আসনের এমপি মাহবুব-উল-আলম হানিফসহ কয়েকজন এমপিদের জ্বাল স্বাক্ষরিত প্যাড, কম্পিউটার, ২২ টি সীল, ডিও লেটার এবং এসব তৈরীর বিভিন্ন সরঞ্জাম৷ এছাড়াও মূল নায়ক রম্নবেলের বাবার নামে ৫ ঠিকানায় ৫টি ভূয়া মুক্তিযোদ্ধার সনদপত্র, বিভিন্ন ব্যাংকের চেকবই পাওয়া গেছে৷ কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার মফিজ উদ্দিন আহমেদ জানান, কুষ্টিয়া জেলা ছাড়াও পাশর্্ববর্তী এলাকা সমুহে একটি প্রতারক চক্র দীর্ঘদিন ধরে মন্ত্রী, এমপি, কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাদের ভূয়া সীল ব্যবহার করে জ্বাল স্বাক্ষরিত ডিওলেটারের মাধ্যমে সরকারী অফিস আদালতে প্রতারণা করে আসছিল৷ এমন সংবাদের ভিত্তিতে গোয়েন্দা নজরদারী চালিয়ে এবং মোবাইল ট্রাকিংয়ের মাধ্যমে রবিবার সকাল ১০টায় কুষ্টিয়া শহরের পেয়ারাতলা এলাকার একটি ছাত্রাবাস থেকে ওই প্রতারক চক্রের মূল হোতা রুবেল আহমেদকে (৩২) গ্রেফতার করা হয়৷ সে শহরের পেয়ারাতলা গোরস্থান পাড়ার জিন্নাত মঞ্জিল ছাত্রাবাস থেকে প্রতারণার কাজ চালিয়ে আসছিল৷ রুবেল আহমেদ চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার জামদানী ঘোষবিলা গ্রামের মোল্লা বাশারের ছেলে৷ পরে রম্নবেলের দেয়া তথ্য অনুযায়ী তার সহযোগি শহরের পূর্ব মজমপুর এলাকার রাজুর ছেলে জহুরম্নল ইসলাম ও শহরের কোর্ট ষ্টেশন এলাকার সাত রং গ্যালারীর স্বাত্বাধিকারী সিল তৈরির নায়ক আজিজুর রহমানকে আটক করা হয়৷ তবে এই প্রতারক চক্রের সাথে আরো যারা জড়িত রয়েছে তাদেরকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার ঘোষনা দিয়েছেন পুলিশ সুপার৷ গোয়েন্দা পুলিশ জানিয়েছে, এ সকল প্রতারণার সাথে আরো অনেকেই জড়িত ৷ তাদের আটক করতে অভিযান অব্যাহৃত রয়েছে৷

শেয়ার করুন