ফেনী পৌরসভায় মেয়র পদে উপনির্বাচন চলছে

0
52
Print Friendly, PDF & Email

আজ শনিবার সকাল আটটা থেকে ফেনী পৌরসভার ১৮ টি ওয়ার্ডের ৩০টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। পৌরসভার মোট ভোটার ৭৭ হাজার ৫ শত ৮ জন। পুরুষ ভোটার ৪০ হাজার ২১ জন এবং নারী ভোটার ৩৭ হাজার ৫ শত ৮৭ জন। মেয়র পদে উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মহাজোট সরকারের জাতীয় পার্টি (এরশাদ) কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব হাজী আলাউদ্দিন এবং ১৯ দলীয় জোট প্রার্থী পৌর বিএনপির সভাপতি আলাল উদ্দিন আলাল।

সকাল আটটায় রামপুর হাফেজিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে দুই প্রতিদ্বন্দ্বির অভিযোগ পাল্টা অভিযোগের মধ্য দিয়ে ভোটগ্রহণ শুরু হয়।

ফেনী থানার এসআই শাহ আলম জানান, সকাল সাতটা ৪০ মিনিটে ভোট গ্রহণের আগে মধুপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের বাইরে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে গোলাগুলি ও ককটেল বিস্ফোরনের ঘটনা ঘটে। এ সময় একজন গুলিবিদ্ধ হয়। তবে তার নাম জানা যায়নি। এছাড়াও ভোটের আগের রাতে পৌর এলাকার ১৮টি ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে ভোটারদের আতঙ্ক সৃষ্টির জন্য ব্যাপক ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ১৮টি ওয়ার্ডের ৩০টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ সার্বিকভাবে শান্তিপূর্ণ হলেও ব্যাপক জালভোটের ছড়াছড়ি চলছে।

এদিকে নির্বাচন বাতিল করে পুনর্নির্বাচনের দাবি জনিয়েছেন ১৯ দলীয় প্রার্থী ফেনীর পৌর বিএনপির সভাপতি আলাল উদ্দিন আলাল।

আলালের অভিযোগ, নির্বাচনের আগের দিন রাতেই কেন্দ্রে কেন্দ্রে ব্যালট পেপার পৌঁছানোর কারণে ফেনী পৌরসভার বিভিন্ন এলাকার অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের জড়ো করে প্রতিপক্ষ প্রার্থী কেন্দ্র দখল করে ভোট কেটে নেন।

উল্লেখ্য, ৫ জানুয়ারি ১০ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফেনীর পৌর মেয়র নিজাম উদ্দিন হাজারী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় স্থানীয় সরকার মন্¿ণালয় এক প্রজ্ঞাপনে ফেনী পৌরসভার মেয়র পদটি শূণ্য ঘোষণা করে।

শেয়ার করুন