প্রথম সেমিতে আজ মুখোমুখি শ্রীলংকা-ওঃইন্ডিজ

0
79
Print Friendly, PDF & Email

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এখনো শিরোপার স্বাদ পায়নি শ্রীলংকা। দুবার দলটি ফাইনালে উঠলেও শিরোপা অধরাই রয়ে গেছে লংকানদের কাছে। ২০০৯ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ফাইনালে মাঠে নামলেও তাদের ৮ উইকেটে হারিয়ে শিরোপা জয় করে পাকিস্তান। আর ২০১২ সালে সর্বশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ফাইনালে খেলতে নেমে হেরে যায় ৩৬ রানে। ফলে শ্রীলংকাকে কাঁদিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজই টি-টোয়েন্টি শিরোপা জয় করে। সেই ফাইনালের হারের দুঃখ ভুলার আগেই আবার দল দুটি মুখোমুখি ফাইনালের উঠার লড়াইয়ে। শ্রীলংকা কি পারবে সেই ফাইনালের হারের প্রতিধোধ নিতে? নাকি লংকানদের হারিয়ে শিরোপা ধরে রাখার পথে এগিয়ে যাবে চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তারই ফয়সালা হবে আজ মিরপুর স্টেডিয়ামে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে। সন্ধ্যা সাতটায় শুরু হবে ম্যাচটি। আগামীকাল একই মাঠে একই সময়ে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এবার কোয়ার্টার ফাইনাল পদ্ধতি ছিল না বলেই জমমজাট নক আউট পর্ব শুরু হচ্ছে সেমিফাইনাল থেকে। ফলে ফাইনালের আগেই সেমিফাইনালে থাকছে অন্য রকম উত্তেজনা। যেখানে থাকছে শিরোপার হাতছানি, প্রতিশোধের জ্বালা আর শিরোপা ধরে রাখার লড়াইও। গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যে দল দুটি শিরোপার জন্য লড়েছে সেই শ্রীলংকা আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ মুখোমুখি হচ্ছে প্রথম সেমিতে। ফলে ফাইনালের আগেই যে কোন একটি ফেভারিট দলকে বিদায় নিতে হচ্ছে। ফলে ফাইনালে উঠতে প্রাণপণ চেষ্টা করতে হবে দল দুটিকে। শক্তি আর পরিসংখ্যানে দল দুটির মধ্যে তেমন কোন পার্থক্য নেই বললেই চলে। টি-টোয়েন্টি ফরমেটে এই দল দুটি এর আগে ৫ বার মুখোমুখি হলেও ৪ বার জয় পায় শ্রীলংকা। দল দুটির মধ্যে প্রতিটি দেখাই হয়েছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেই। তবে সর্বশেষ গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে দেখায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩৬ রানে শ্রীলংকাকে হারিয়ে শিরোপা জয় করে। আগের ৪ বার শ্রীলংকা জয় পেলেও ফাইনালে সেই হারের স্মৃতি এখনো ভুলতে পারেনি। তাই আজ ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে প্রতিশোধ নেয়ার পাশাপাশি ফাইনালে উঠতে চায় লংকানরা। আর শিরোপা ধরে রাখতে হলে এই ম্যাচে জিততেই হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। ২০১৪ সালের আগে দুই দল টি-টোয়েন্টি ম্যাচে পাঁচ বারের দেখায় প্রথম ৪ বারই জয় পায় লংকানরা। ২০০৯ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গ্রুপপর্বে ১৫ রানে জয় পায় শ্রীলংকা।  ২০০৯ সালে সেমিফাইনালে শ্রীলংকা ৫৭ রানে, ২০১০ সালে ৫৭ রানে  আর ২০১২ সালে গ্রুপ ম্যাচে ৯ উইকেটে জয় পায় শ্রীলংকা।  ওয়েস্ট ইন্ডিজ  টানা চার বার হারের সেই প্রতিশোধ নিয়েছে তিন বছর পর। একটাই আঘাত করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২০১২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে। লংকানদের কাঁদিয়ে শিরোপা নিয়েই দেশে ফিরেছে। এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে হার মানা বাদ দিলে সুপার ফর্মে আছে বর্তমান টি-টোয়েন্টি চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বি গ্রুপ থেকে দলটি রানার্সআপ হয়েই  সেমিফাইনালে উঠেছে। আর টি-টেয়েন্টি বিশ্বকাপের শ্রীলংকা এ গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়েই সেমিফাইনালে উঠে। গ্রুপপর্বের চারটি ম্যাচের মধ্যে তিনটি ম্যাচে জয় নিয়ে ৬ পয়েন্টসহ শ্রীলংকা হয় এ গ্রুপ সেরা। আর চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ বি গ্রুপ থেকে রানার্সআপ হয়েই সেমিফাইনালে উঠে। ওয়েস্ট ইন্ডিজও চারটি ম্যাচের মধ্যে তিনটি ম্যাচে জয় পায়। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভারতের কাছে হারলেও পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া আর বাংলাদেশকে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠে। শ্রীলংকা ইংল্যান্ডের কাছে হারলেও জয় পায় দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড আর নেদারল্যান্ডের বিপক্ষে। তবে আজ মাঠে যে দলটি নিজেদের প্রমাণ করতে পারবে সেই দলটিই ফাইনালের টিকিট পাবে।

শেয়ার করুন