সোহেল রানার জামিন স্থগিত

0
56
Print Friendly, PDF & Email

রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানা একটি মামলায় হাই কোর্টে জামিন পেলেও তা স্থগিত করেছে আপিল বিভাগ।

ভবন ধসের ঘটনায় ইমারত নির্মাণ বিধিমালায় দায়ের করা ওই মামলায় সোহেল রানাকে দেয়া জামিনের ওই আদেশ মঙ্গলবার স্থগিত করেন আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনে চার সপ্তাহের জন্য হাই কোর্টের আদেশ স্থগিত করা হয়েছে বলে  বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মাসুদ হাসান।

এই শুনানিতে অংশ নেয়া অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “পরবর্তী শুনানি না হওয়া পর্যন্ত তার জামিন আদেশ স্থগিত করা হয়েছে।”

গত ২৩ মার্চ হাই কোর্টের বিচারপতি মো. রেজাউল হাসান ও বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের বেঞ্চ এই মামলায় রানাকে ছয় মাসের জামিন দিয়েছিল।

অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, “আমি আদালতে বলেছি, যদিও ইমারত নির্মাণ বিধিমালায় এই মামলা হয়েছে। এখানে এটা হত্যা মামলা নয়। কিন্তু তার এই আইন লঙ্ঘনের কারণেই ১ হাজারের বেশি মানুষের জীবন গেছে।

“তাই এই ঘটনাকে একই আইনে দায়ের করা অন্য মামলার মতো দেখলে চলবে না। শুনানির পর আদালত তার জামিন স্থগিত করেছেন।”

ইমারত নির্মাণের মামলায় জামিন দিলেও পুলিশের করা অন্য একটি মামলায় রানার জামিনের আবেদন আদালত নাকচ করে দিয়েছিল।

ইমারত বিধির মামলায় গ্রেপ্তার রানার বাবাকেও গত বছরের ১২ সেপ্টেম্বর জামিন দিয়েছিল হাই কোর্ট।

গত বছর ২৪ এপ্রিল সাভারের রানা প্লাজা ধসে অন্তত ১১৩০ জন নিহত হন, যাদের অধিকাংশই পোশাক শ্রমিক।

পরদিন সাভার মডেল থানায় রাজউকের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. হেলাল আহমেদ ইমারত বিধিমালা না মেনে রানা প্লাজা নির্মাণের অভিযোগে এ মামলা দায়ের করেন।

অভিযোগ প্রমাণিত হলে এ মামলায় আসামিদের সর্বোচ্চ দুই বছর শাস্তি হতে পারে।

রানা প্লাজা ধসের ঘটনায় অবহেলাজনিত মৃত্যুর অভিযোগে গত ২৫ এপ্রিল সাভার মডেল থানার উপ পরিদর্শক ওয়ালি আশলাফ খান অন্য মামলাটি দায়ের করেন।

রানা, রানার বাবা আব্দুল খালেকসহ মোট ৬ জনকে ওই মামলায় আসামি করা হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাদের সর্বোচ্চ যাবজ্জীবন হতে পারে।

শেয়ার করুন