ক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠান ও ভোট জালিয়াতি রোধে ইসি ক্ষমতা প্রয়োগ করছে না : সুজন সম্পাদক

0
138
Print Friendly, PDF & Email

সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেছেন, ক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠান এবং ভোট জালিয়াতি রোধে নির্বাচন কমিশন ক্ষমতা প্রয়োগ করছে না। তাই ধাপে ধাপে নির্বাচনে সহিংসতার মাত্রা বেড়েই চলেছে। তিনি বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠান এবং ভোট জালিয়াতি রোধে সংবিধান ও আইন আমাদের নির্বাচন কমিশনকে যথেষ্ট ক্ষমতা দিয়ে রেখেছে। কিন্তু কমিশন তা প্রয়োগ করছে না। নির্বাচনের আগের দিন ও ভোটের দিন কেন্দ্রে কেন্দ্রে সেনাবাহিনী, র‌্যাব ও বিজিবির টহলও সহিংসতা রোধে কোনো কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারেনি।
গতকাল শুক্রবার রাজধানীর মুক্তি ভবনে ‘পঞ্চম পর্যায়ের উপজেলা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী  চেয়ারম্যান প্রার্থীগণের তথ্য প্রকাশ’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
তিনি বলেন, উপজেলা নির্বাচনে ক্রমবর্ধমাণ কারচুপি ও সহিংসতা আমাদের শঙ্কিত করছে। নির্বাচনী ব্যবস্থা যদি কলুষমুক্ত না করা যায়, তাহলে দেশে শান্তি ফিরে আসবে না। চলমান সহিংসতার কারণে দেশে নারকীয় পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে বলেও মনে করেন তিনি। নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে সকল প্রকার বিতর্ক ও সহিংসতামুক্ত করতে সর্বশক্তি নিয়োগ করার জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
সুজন’র সহযোগী সমন্বয়কারী সানজিদা হক বিপাশা মূল প্রবন্ধে জানান, উপজেলা নির্বাচনের পঞ্চম দফায় ৩৫৪ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে স্বল্পশিক্ষিত অর্থাৎ এসএসসি বা তার থেকে কম শিক্ষাগত যোগ্যতাসম্পন্ন প্রার্থীর হার ৩৪ দশমিক ১৮ শতাংশ (১২১ জন)। আবার ৩৫৪ জনের মধ্যে ১১২ জনের (৩১ দশমিক ৬৩ শতাংশ) বিরুদ্ধে মামলা আছে।
সানজিদা হক বলেন, চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে অধিকাংশের পেশা ব্যবসা (৬৪ দশমিক ৯৭ শতাংশ বা ২৩০ জন)। কৃষির সঙ্গে জড়িত ৬০ জন (১৬ দশমিক ৯৫ শতাংশ)। শিক্ষাগত  যোগ্যতার ক্ষেত্রে ১৬১ জন (৪৫ দশমিক ৪৮শতাংশ) স্নাতক বা স্নাতকোত্তর ডিগ্রির অধিকারী। বর্তমানে ২৪২ জনের (৩৮ দশমিক ৩৬ শতাংশ) বিরুদ্ধে কোনো মামলা নেই। ২১ জনের (৫ দশমিক ৯৩ শতাংশ) বিরুদ্ধে বর্তমানে ৩০২ ধারায় মামলা রয়েছে। তিনি আরও বলেন, ৩৫৪ জন প্রার্থীর মধ্যে ৬০ জন (১৬ দশমিক ৯৪ শতাংশ) ঋণগ্রহীতা। প্রার্থীদের মধ্যে আয়কর প্রদানকারীর হার ৩২ দশমিক ৭৬শতাংশ (১১৬ জন)।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি এম. হাফিজউদ্দিন খান, সহ-সভাপতি এ.এ.এম. শাহজাহান, সহ-সম্পাদক জাকির হোসেন প্রমুখ।

শেয়ার করুন