মোদিকে খুন করার হুমকি কংগ্রেস নেতার

0
79
Print Friendly, PDF & Email

নির্বাচনী বক্তব্যে বিজেপি নেতা নরেন্দ্র মোদিকে কেটে টুকরো টুকরো করার হুমকি দিয়ে ফৌজদারি মামলার মুখে পড়েছেন কংগ্রেস দলীয় এক এমপি প্রার্থী।

এনটিভির খবরে বলা হয়, বুধবার উত্তর প্রদেশের সাহারানপুর থেকে কংগ্রেস দলীয় প্রার্থী ইমরান মাসুদ (৪০) বিজেপি নেতা ও প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে উস্কানিমূলক কথা বলেন।

ওই বক্তব্য দেয়ার জন্য তার বিরুদ্ধে এখন ফৌজদারি অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে।

দুই পক্ষের মধ্যে বিদ্বেষ ছড়ানোসহ আরো কয়েকটি অভিযোগে তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩ (এ), ২৯৫ (এ), ৫০৪ ও ৫০৬ ধারায় মামলা করা হয়েছে বলে জেলা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

ধারণ করা একটি ভিডিওতে মাসুদকে বলতে শোনা যায়, “আমি রাস্তার ছেলে, মানুষের জন্য জীবন দিতে সব সময় প্রস্তুত আছি। আমি মৃত্যু কিংবা হত্যাকাণ্ডের শিকার হওয়াকে ভয় পায় না।

তিনি এটাকে গুজরাট ভেবে বসে আছেন। গুজরাটে আছে মাত্র ৪ শতাংশ মুসলিম। আর এখানে (উত্তর প্রদেশে) আছে ৪২ শতাংশ ভোট।”

উত্তর প্রদেশে মোদির প্রার্থী হওয়ার প্রসঙ্গ তুলে ধরে মাসুদ বলেন, “তিনি যদি উত্তর প্রদেশের মুসলিমদের সঙ্গে গুজরাটের মতো ব্যবহার করার সাহস করেন তবে তারা তাকে কেটে কুটরো টুকরো করবে।”

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, ওই ব্ক্তব্যে জন্য মাসুদ ক্ষমা চেয়েছেন।

বলেছেন, “আমি স্বীকার করছি- ওটা আমার ভুল হয়েছে। নির্বাচনকে সামনে রেখে এধরনের বক্তব্য দেয়া আমার ঠিক হয়নি।”

তবে টাইমস অব ইন্ডিয়ার কাছে টেলিফোনে মাসুদ দাবি করেছেন তিনি বক্তব্যে কোনো আসালীন ভাষা ব্যবহার করেন নি। তাই মামলা নিয়েও চিন্তিত নন।

“আমি কোনো বাজে ভাষা ব্যবহার করিনি। মোদির বিষয়ে আমি উদ্বেগের কথাই জানিয়েছি। আমি তার সম্পর্কে এবং তার কর্মকাণ্ড মানুষের কাছে তুলে ধরবো।”

শনিবার সাহারানপুরে এক নির্বাচনী জনসভায় কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধির ভাষণ দেয়ার কথা রয়েছে। তার জনসভার আগেই ওই এলাকায় লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস প্রার্থী বক্তব্য নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হল।

মাসুদের বক্তব্যের জন্য কংগ্রেস ও এর প্রার্থীর সমালোচনা করেছেন জ্যেষ্ঠ বিজেপি নেতা অরুণ জটলি। মোদিকে আক্রমণ করে বক্তব্য দেয়া উগ্র ধর্মনিরপেক্ষতার বহিঃপ্রকাশ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

২০০৭ সালে কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধি গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী মোদিকে ‘মওত কা সওদাগর’ বা মৃত্যুর ফেরিওয়ালা বলে কটাক্ষ্য করেছিলেন বলেও প্রসঙ্গ টানেন এই বিজেপি নেতা।

গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ৬৪ বছর বয়সী মোদি এবারের লোকসভা নির্বাচনে উত্তর প্রদেশের বারানাসি/বেনারসি আসন থেকে লড়ছেন।

‘নির্বাচনের মাধ্যমে তিনি উত্তর প্রদেশকে গুজরাটে পরিণত করছেন’ বলে সাবধান করেন কংগ্রেস নেতা মাসুদ।

নির্বাচনের আগে ভারতের গণমাধ্যমগুলোতে পরিচালিত জনমত জরিপে নরেন্দ্র মোদিকে এগিয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে। তবে ২০০২ সালে ভারতের গুজরাটে বড় রকমের সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার জন্য মোদির সমালোচনা করছেন তার বিরোধীরা।

অবশ্য ওই দাঙ্গায় মোদির কোনো সংশ্লিষ্টা নেই বলে রায় দিয়েছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

এদিকে মোদিকে নিয়ে মাসুদের বক্তব্যে বিব্রত স্বয়ং কংগ্রেস।

দলের মুখপাত্র রনদ্বীপ সুরুজওয়াল বলেন, কংগ্রেস সব সময় সহিংসতাকে নিন্দা করে। সেটা কথায় হউক আর অন্য কোনোভাবে হউক। ভারতের অসাম্প্রদায়িক চিত্র রক্ষা করতে বিজেপি ও এর প্রার্থী নরেন্দ্র মোদিকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করতে চায় তার দল।

শেয়ার করুন