মা-ভাই-সন্তানকে বেঁধে গৃহবধূকে গণধর্ষণ

0
223
Print Friendly, PDF & Email

চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণের একটি বাসায় ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটেছে। মা, ভাই ও সন্তানকে বেঁধে রেখে গৃহবধূকে (২২) গণধর্ষণ করেছে।
এ ঘটনায় পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হোসাইন মো. কচিকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। এতে ক্ষুব্ধ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা মতলব পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থানে তাণ্ডব চলিয়েছে বলে জানা গেছে।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে মতলব পৌর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূ থানা হেফাজতে রয়েছেন।
এর আগে ধর্ষিতা বাদী হয়ে ৫ ধর্ষকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় পুলিশ পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হোসাইন মোহাম্মদ কচিকে আটক করে।
মামলার এজহারে জানা গেছে, জেলার মতলব দক্ষিণে ওই গৃহবধূ ভাড়া বাসায় স্বামী-সন্তান নিয়ে বসবাস করছিলেন। স্বামী বর্তমানে জেলহাজতে আছেন। সোমবার সন্ধ্যায় ধর্ষিতার স্বামীর বন্ধু সিরাজুল ইসলাম ওই বাসায় মামলার খোঁজ-খবর নিতে আসেন।
বিষয়টি মতলব দক্ষিণ ছাত্রলীগ নেতা কচিসহ তার ৪ বন্ধুর সন্দেহ হয়। রাতে তারা গৃহবধূর ঘরে ঢোকে। তারা সিরাজসহ গৃহবধূর মা, ভাই ও ছেলেকে ঘর থেকে বের করে এনে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখে। পরে কচিসহ তহসীব, শরীফ, বাবু ও জামাল মিলে ওই গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।
দুপুরে ধর্ষিতা থানায় মামলা দায়ের করেন। বিকালে কচিকে আটক করে পুলিশ। এতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মতলব পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থানে তাণ্ডব চালায়।

শেয়ার করুন